শাল্লায় প্রকল্পের অর্থ লোপাটের অভিযোগ, তদন্তের নির্দেশ

স্টাফ রিপোর্টার শাল্লা
শাল্লা উপজেলায় এমপি বরাদ্দের প্রকল্পের নামে কোটি টাকা লোপাটের অভিযোগ সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মুহাম্মদ মোশাররফ হোসেন তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেনের কাছে মঙ্গলবার এক দাপ্তরিকপত্রে নির্দেশনার বিষয়টি জানানো হয়। বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় থেকে ঘটনাটি দ্রুত তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে সিলেটের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার দেবজিৎ সিনহা নিশ্চিত করেছেন।
অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার দেবজিৎ সিনহা বলেন, ‘তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার জন্য সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসককে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। দ্রুততম সময়ের মধ্যে তিনি প্রতিবেদন জমা দেবেন। প্রতিবেদনের আলোকে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
জানা যায়, অতিদরিদ্রদের জন্য সরকারের কাবিখা, ২৫৫টি প্রকল্প বাস্তবায়নে অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। কিছু প্রকল্পের অস্তিত্ব নেই। এমন নামসর্বস্ব প্রকল্প বাস্তবায়ন দেখিয়ে তছরুপ করা হয়েছে কোটি টাকা। সরেজমিনে প্রকল্পের কোনো অস্তিত্বই খুঁজে পাওয়া যায়নি। নামে মাত্র কয়েকটি প্রকল্পের কাজ দেখা যায়।
এদিকে লোপাটে অভিযুক্ত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছে দুর্নীতিমুক্তকরণ বাংলাদেশ ফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির নেতারা। বুধবার বিকেলে সিলেটের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার দেবজিৎ সিনহার কাছে স্মারকলিপি দিয়ে সংগঠনের নেতারা এ দাবি জানিয়েছেন। স্মারকলিপি দেওয়ার পর ফোরামের একটি প্রতিনিধিদল একই ঘটনায় লিখিত অভিযোগ দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত সিলেট কার্যালয়ের পরিচালকের কাছে পৌঁছে দেন। অভিযোগে কোটি টাকা লোপাটের বিষয়টি আমলে নিয়ে তদন্তের মাধ্যমে সরকারি টাকা তছরুপের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানানো হয়।
স্মারকলিপি দেওয়ার সময় ফোরামটির কেন্দ্রীয় জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি ইকবাল হোসেন চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মকসুদ হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আইনজীবী মামুন রশীদ, সাংগঠনিক সম্পাদক অরুণ কুমার দেব, সাবেক কেন্দ্রীয় প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শাহিদুর রহমান, কেন্দ্রীয় সদস্য আদনান খান হেলাল, সন্তুষ দেব প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।