শীঘ্রই পরিকল্পনা কমিশনে অনুমোদনের জন্য যাচ্ছে

স্টাফ রিপোর্টার
সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার হালুয়ারঘাট-ধারারগাঁও এলাকায় সুরমা নদীর উপর সেতু নির্মাণ প্রকল্প স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে প্রক্রিয়াধীন আছে। ওখান থেকে এই প্রকল্প পরিকল্পনা কমিশনে অনুমোদনের জন্য যাবে। বুধবার এলজিইডি’র সেতু নির্মাণ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক আল্লাহ্ হাফেজ এই তথ্য জানান।
মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবিজরিত ৪৮ শহীদের শহীদ মিনারে যাতায়াত দুর্ভোগের মুক্তি, ডলুরায় হওয়া দুই দেশের সীমান্তহাটে যাতায়াত সুবিধা এবং ডলুরায় শুল্কবন্দর হবার যে কাজ শুরু হয়েছে সেই শুল্কবন্দরে যাতায়াত এবং পণ্য পরিবহনের সুবিধার জন্য সুরমা নদীর হালুয়ারঘাট-ধারারগাঁও অংশে সেতু নির্মাণ জরুরি।
বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যান সুনামগঞ্জের ধারারগাঁওয়ের বাসিন্দা ড. মোহাম্মদ সাদিক ২০১৭ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রীর মূখ্যসচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী, পহেলা মার্চ এলজিইডির প্রধান প্রকৌশলী শ্যামা প্রসাদ অধিকারী, ১৩ সেপ্টেম্বর স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় সচিব আব্দুল মালেককে হালুয়ারঘাট-ধারারগাঁওয়ে সেতু নির্মাণের জন্য অনুরোধপত্র প্রদান করেন।
এই চিঠির প্রেক্ষিতে এলজিইডি’র প্রধান প্রকৌশলীর নির্দেশে গত বছরের ২২ ডিসেম্বর এলজিইডি’র ব্রীজ ইউনিটের প্রকল্প পরিচালক মো. এবাদত আলী হালুয়ারঘাট-ধারারগাঁও এলাকা সরেজমিনে পরিদর্শন করেন। এসময় তিনি স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলেন এবং সেতু নির্মাণ স্থান ঘুরে দেখেন।
পরে স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীদের প্রকল্প পরিচালক মো. এবাদত আলী বলেন, ‘হালুয়ারঘাট-ধারারগাঁও সেতু নির্মাণ হলে সরকারী রাজস্ব বাড়বে এবং সুরমার উত্তরপাড়ের কয়েকটি ইউনিয়নের মানুষের জীবনমানের উন্নয়ন ঘটবে।’
গত ১১ জানুয়ারি হালুয়ারঘাট-ধারারগাঁও সেতুর সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের অংশ হিসাবে হাইড্রোলজি-মরকোলজি (প্রাণী বিজ্ঞান ও নদী বিজ্ঞান সম্পর্কিত তথ্য) পরীক্ষার কাজ করেন প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি বিশেষজ্ঞ দল। সুনামগঞ্জ এলজিইডি’র একজন জ্যেষ্ঠ প্রকৌশলী তাঁকে উদ্ধৃত না করার অনুরোধ করে বুধবার বিকালে বলেন,‘মাননীয়
পরিকল্পনা মন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি মহোদয়ও হালুয়ারঘাট-ধারারগাঁও সেতু এবং দোয়ারাবাজারে সুরমা নদীর উপর প্রস্তাবিত ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা সেত’ু নির্মাণের বিষয়ে সম্প্রতি ইতিবাচক মন্তব্য করেছেন।’
এলজিইডি’র হালুয়ারঘাট-ধারারগাঁও ব্রীজ ইউনিটের বর্তমান প্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলী আল্লাহ্ হাফেজ বুধবার বিকালে বলেন,‘ধারারগাঁও-হালুয়ারঘাট সেতু নির্মাণ প্রকল্পের অফিসিয়েল কাজের অগ্রগতি হয়েছে। এই প্রকল্পটি এখন স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে প্রক্রিয়াধীন আছে। ওখান থেকে পরিকল্পনা কমিশনে আসবে। পরিকল্পনা কমিশন থেকেই সিদ্ধান্ত হবে কোন পর্যায়ে কাজটি শেষ করা যাবে।’ তিনি বলেন, ‘সুরমা নদীর দোয়ারাবাজারে ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা সেতু’ নির্মাণের দাবি রয়েছে। এই বিষয়ে মাননীয় পরিকল্পনা মন্ত্রী মহোদয়ের ডিও লেটার নিয়ে পাঠানোর জন্য সুনামগঞ্জ এলজিইডি’র দায়িত্ব প্রাপ্তদের বলা হয়েছে। তিনি হয়তো সেটি দিয়েছেন। আমার কাছে এখনো এসে পৌঁছায়নি। ডিও লেটার পাবার পর এই সেতুর বিষয়েও অফিসিয়েল কাজ শুরু হবে।’