শেখ হাসিনা জগলুলের পরিবারের সাথে আছেন-থাকবেন

বিন্দু তালুকদার
অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন,‘ আমি দলের কর্মী হিসেবে বলতে পারি, যারা দলের জন্য নিবেদিত জননেত্রী শেখ হাসিনা তাদেরকে কাছে রাখেন। সুনামগঞ্জ পৌরসভার সদ্য প্রয়াত মেয়র আয়ূব বখত জগলুল সব সময় আওয়ামী লীগের পাশে থেকে দলের জন্য কাজ করেছেন। শুধু জগলুল নয়, তার পুরো পরিবারই আওয়ামী লীগ প্রেমী, এই পরিবারের সঙ্গে আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা আছেন-থাকবেন।’
তিনি আরও বলেন, ‘হোসেন বখত সাহেবের পরিবার ঐতিহ্যবাহী আওয়ামী লীগ পরিবার। এই পরিবার মহান মুক্তিযুদ্ধসহ সব সময় আওয়ামী লীগের হয়ে কাজ করেছে। আমাদের দলের নেত্রী  প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাসহ আমরা এই পরিবারের সাথে আছি-থাকব। আমরা দোয়া করি প্রয়াত মেয়র জগলুলের ছেলে-মেয়ে যেন প্রতিষ্ঠিত হয়।’
বুধবার বিকালে প্রয়াত পৌর মেয়র আয়ূব বখত জগলুল ও তাঁর পিতা মরহুম হুসেন বখতের কবর জিয়ারত ও তার বাসভবনে গিয়ে প্রয়াত মেয়রের স্ত্রী বেবী সুলতানাসহ পরিবারের সকল সদস্যদের সমবেদনা জানান। পরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় এসব কথা বলেন তিনি।
অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান আরও বলেন,‘বর্তমান সরকার উন্নয়নের সরকার, এই সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে বাংলাদেশে উন্নয়নের জোয়ার বইয়ে দিয়েছেন। যা অতীতে কেউ আর পারে নি। তাই এই উন্নয়ন ধারাকে ধরে রাখতে  বর্তমান সরকারকে পুনরায় নির্বাচিত করতে হবে। আওয়ামী লীগকে দলের স্বার্থে ও দেশের সাথে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে, উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হবে।’  
এসময় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক কামরুজ্জামান, সহকারি পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, সদর থানার ওসি মো. শহীদুল্লাহ, মরহুম আয়ুব বখত জগলুলের ভাই রাশেদ বখত নজরুল, ইয়াকুব বখত বহলুল, নাদের বখত, নোমান বখত পলিন, মরহুমের ছেলে আসওয়াদ বখত রাদ, অ্যাডভোকেট চাঁন মিয়া, অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম, অ্যাডভোকেট শুকুর আলী, অ্যাড. বশির উদ্দিন,  অ্যাডভোকেট আব্দুল ওয়দুদ, অ্যাড. শফিক,  আওয়ামী লীগ নেতা সিরাজুর রহমান সিরাজ, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট বুরহান উদ্দিন দোলন, সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান সুজন প্রমুখ।