সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে মহিলা কলেজে বিক্ষোভ

স্টাফ রিপোর্টার
গতকাল সোমবার দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরে প্রথম পৃষ্ঠায় ‘সরকারি মহিলা কলেজের হোস্টেলে অনিয়ম-দুর্নীতি’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশের পর বিক্ষোভ করেছে কলেজের ছাত্রীরা।
সোমবার দুপুরে কলেজের ছাত্রীরা প্রকাশিত প্রতিবেদনটি সঠিক নয় দাবি করে মহিলা কলেজ ক্যাম্পাসে এই বিক্ষোভ করেন।
সোমবার স্থানীয় একটি অনলাইন গণমাধ্যমে এ বিষয়ে সংবাদ প্রকাশ হয়েছে। প্রকাশিত সংবাদে ছাত্রীরা জানিয়েছেন, সরকারি মহিলা কলেজ এর হোস্টেল সম্পর্কিত প্রতিবেদনে উল্লেখিত কোন কোন তথ্য তাদের কাছে মিথ্যা মনে হয়েছে। পাশাপাশি অর্থ কেলেঙ্কারির বিষয়ে যেসব অভিযোগ আনা হয়েছে তা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।
কলেজের হোস্টেল সুপার প্রভাষক শামীমুল হাসান অনলাইন গণমাধ্যমে বলেছেন, ‘আগের চেয়ে এই প্রতিষ্ঠানে হোস্টেলের অবস্থা অনেক উন্নত, একটা সময়ে এই হোস্টেলে করুণ অবস্থা ছিলো। গণমাধ্যমে যে খবর এসেছে সেটার প্রতিবাদ জানিয়ে ছাত্রীরা নিজে থেকেই
আন্দোলনে নেমেছে।’
এ ব্যাপারে সুনামগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ পরাগ কান্তি দেব সোমবার বিকালে দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরকে বলেন,‘এসব বিষয়ে আমি কিছু জানি না। আমি অসুস্থ, বাসায় আছি। সোমবার কলেজে যাইনি। কলেজ থেকে কেউ আমাকে এসব বিষয়ে কিছু বলেনি।’
প্রসঙ্গত, সুনামগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজের হোস্টেলের নানা অনিয়ম-দুর্নীতি বর্ণনা করে প্রতিকার চেয়ে সম্প্রতি জেলা প্রশাসকের কাছে একটি আবেদন করা হয়েছে। শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের পক্ষে এই আবেদন করা হয়। আবেদনের একটি কপি ডাকযোগে দৈনিক সুনামগঞ্জের খবর অফিসে পাঠানো হয়েছে। আবেদনের প্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসন থেকে বিষয়টি তদন্ত করে দেখার জন্য একজন সহকারি কমিশনারকে দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে। তবে অভিযোগের বিষয়ে সহকারি হোস্টেল সুপার প্রভাষক রামানুজ আচার্য দাবি করে বলেছেন,‘অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ মিথ্যা ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। এই অভিযোগের সাথে কলেজের দু’একজন শিক্ষক জড়িত আছেন।’