সম্মানি ভাতা বৃদ্ধি ও রেশন কার্ড চালুর দাবি

জগন্নাথপুর অফিস
‘জীবন বাজি রেখে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় আমরা নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পাালন করে আসছি। কিন্তু কাজের তুলনায় আমাদের নিরাপত্তার জন্য আধুনিক কোনো সরঞ্জাম নেই। এরমধ্যে কাজের তুলনায় বেতন কম। গত ইউপি নির্বাচনের দায়িত্ব পালনের অর্থ ও ঈদ বোনাস এখনো পাওয়া যায়নি। ফলে অনেক সময় মানবেতর জীবন যাপন করতে হয়।’
বুধবার দুপুরে জগন্নাথপুর উপজেলা আনসার ও ভিডিপি’র কার্যালয়ের উদ্যোগে ‘আনসার ও ভিডিপি’ সমাবেশে এসব কথা বলেন উপজেলা আনসার ও ভিডিপির কোম্পানি কমান্ডার রাকিবুর রহমান। এসময় তিনি সম্মানি ভাতা বৃদ্ধি ও রেশন কার্ড চালুর দাবি জানান।
সভায় আরেক আনসার নারী সদস্য সৈয়দা শিউলী বেগম বলেন, কষ্টের তুলনায় আমাদের সম্মানি ভাতা কম। এরমধ্যে রেশন নেই। ঝড়, বৃষ্টি ও প্রচ- তাপদাহ উপেক্ষা আমরা মাঠে দায়িত্ব পালন করে আসছি।
উপজেলা সদরের আব্দুস সামাদ আজাদ অডিটরিয়ামে আয়োজিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বিজন কুমার দেব।
উপজেলা আনসার ও ভিডিপির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জিল্লুর রহমানের পরিচালনায় সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন সুনামগঞ্জ জেলা কমান্ড্যান্ট কামরুজামান। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (এসিল্যান্ড) অনুপম দাস অনুপ, জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান, প্রেসক্লাব সভাপতি শংকর রায়, মৎস্য কর্মকর্তা আক্তারুজ্জামান, উপজেলা আনসার ও অভিডিপির কমান্ডার রাকিবুল রহমান, আনসার সদস্য সৈয়দা শিউলী আক্তার।
পরে তিনজন আনসার সদস্যদের মধ্যে তিনটি বাইসাইকেল, পাঁচটি ছাতা ও উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়।
উপজেলা আনসার ভিডিপির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জিল্লুর রহমান বলেন, আনসার ও ভিডিপির সদস্য সম্মানি ভাতা বৃদ্ধির জন্য আমরা উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানাবো। সম্প্রতিকালে অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনের অর্থ ও ঈদ বোনাসের বরাদ্দ পাওয়া গেছে। দ্রুত আনসার সদস্যদের মধ্যে বিতরণ করা হবে।