সম্মেলন ব্যর্থ হওয়ার শঙ্কা

এনামুল হক এনি, ধর্মপাশা
দীর্ঘ ৩৬ বছর পর এবারই প্রথম আজ শুক্রবার ধর্মপাশা উপজেলার মধ্যনগর থানা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন। সম্মেলনকে ঘিরে মধ্যনগরে যখন উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে তখন বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির একাংশের নেতাকর্মীরা জরুরি সংবাদ সম্মেলন করে তৃণমূল নেতাকর্মীদের সমন্বয়ে সম্মেলন করার দাবিসহ ৬ দফা দাবি জানিয়েছেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মধ্যনগর থানা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত নেতাকর্মীরা সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক গিয়াস উদ্দিন নূরীর সমন্বয়হীনতার কারণে সম্মেলন ব্যর্থ হতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেন।
সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির সদস্য কুতুব উদ্দিন তালুকদার ও রুহুল আমিন খান স্বাক্ষরিত লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন কুতুব উদ্দিন তালুকদার। লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, মধ্যনগরের চার ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কাউন্সিলরদের তালিকা তৈরি হয়নি। কাউন্সিলের মাধ্যমে সম্মেলন করতে হবে এবং সম্মেলন শেষে মধ্যনগরেই কমিটি ঘোষণা করতে হবে। মাদকাসক্ত, দুর্নীতিবাজদের কমিটিতে অন্তর্ভূক্ত না করে ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতাদের কমিটিতে অন্তর্ভূক্ত করতে হবে। সম্মেলনে সাম্প্রদায়িক পরিবেশে বজায় রেখে কেন্দ্রীয়, জেলা ও স্থানীয় সংসদ সদস্যসহ আওয়ামী লীগের সকল নেতাকর্মীর উপস্থিতিতে সম্মেলন করতে হবে। সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগ নেতা জহিরুল হক, আব্দুস শহিদ আজাদ, নেহার উদ্দিন তালুকদার, অমরেশ চৌধুরী, প্রদীপ সরকার প্রমুখ।
সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে কুতুব উদ্দিন তালুকদার বলেন, রাত পোহাতেই সম্মেলন অথচ সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির আহ্বায়ক গিয়াস উদ্দিন নূরী এখন পর্যন্ত স্থানীয় নেতৃবৃন্দের সাথে কোনো সমন্বয় করেননি। ওয়ার্ড, ইউনিয়ন ও থানা পর্যায়ের কাউন্সিলরদের তালিকা করা হয়নি। ফলে সম্মেলনের সফলতা নিয়ে সংশয় রয়েছে।
এ ব্যাপারে কথা বলতে সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির আহ্বায়ক গিয়াস উদ্দিন নূরীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এক ঘন্টা পরে কথা বলবেন বলে ফোন কেটে দেন।