‘সাম্যের সমাজ প্রতিষ্ঠা করাই লক্ষ্য’

স্টাফ রিপোর্টার
‘শোষণের বেড়াজালে মানুষের প্রাণ, মুক্তির মিছিলে লড়াইয়ের গান’ প্রতিপাদ্যাকে সামনে রেখে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পী গোষ্ঠীর ৫৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে।
শনিবার সন্ধ্যায় উদীচীর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী সুনামগঞ্জ জেলা সংসদের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
সুনামগঞ্জ পৌরসভার মুক্তমঞ্চে আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী সুনামগঞ্জ জেলা সংসদের সভাপতি শীলা রায়।
উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী সুনামগঞ্জ জেলা সংসদের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন কৃষকনেতা অমর চাঁন দাস, সুনামগঞ্জ সম্মিলিত সাংস্কৃতিক মঞ্চের সভাপতি প্রদীপ পাল নিতাই, সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি পঙ্কজ কান্তি দে, জেলা উদীচীর কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মানব চৌধুরী, চন্দন রায়, জেলা মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শরীফা আশরাফী শম্পা, জেলা যুব ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহের, জেলা ছাত্র ইউনিয়নে সভাপতি আসাদ মনি।
সভায় বক্তারা বলেন, মানবমুক্তির আদর্শ আর চেতনার মশাল হাতে নিয়ে যাত্রা শুরু করেছিল উদীচী। সেই চেতনার মশাল আজও সমুজ্জ্বল। উদীচী একটি আন্দোলন, একটি চেতনার নাম। মানুষের জন্য একটি মানবিক মর্যাদা, সামাজিক ন্যায়বিচার ও সাম্যের সমাজ প্রতিষ্ঠা করাই লক্ষ্য। এজন্য সংস্কৃতিচর্চার মধ্যেই উদীচী নিজেকে সীমাবদ্ধ রাখেনি, মানুষের জীবনবোধ ও অধিকার আদায়ের রাজনৈতিক সংগ্রামেও নেতৃত্ব দিয়েছে।
এরপর উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী সুনামগঞ্জ জেলা সংসদের শিল্পীরা নৃত্য, গান পরিবেশন করেন।
প্রসঙ্গত, ১৯৬৮ সালের ২৯ অক্টোবর প্রতিষ্ঠার পর থেকেই একটি সাম্যবাদী অসাস্প্রদায়িক শোষণমুক্ত সমাজ গঠনের লক্ষ্যে কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে উদীচী।