সিলেট আরিফুলেরই তবে থাকতে হবে অপেক্ষায়

সু.খবর ডেস্ক
সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোট শেষে ফলাফল প্রত্যাখ্যান করার পর বিএনপির মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরীর জয় নিশ্চিত হয়ে গেল। ১৩৪টি কেন্দ্রের মধ্যে ১৩২টিতে তিনি প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বদর উদ্দিন আহমেদ কামরানের চেয়ে চার হাজার ৬২৬ ভোটে এগিয়ে আছেন। আরিফুল হক পেয়েছেন ৯০৪৯৬ ভোট। আর তার প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের কামরান পেয়েছেন ৮৫ হাজার ৮৭০ ভোট। তবে গোলযোগের জন্য স্থগিত দুই কেন্দ্রে ভোট স্থগিত আছে।
সোমবার সিলেট নগরীর উপশহরে স্থাপিত রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে ফল ঘোষণা কালে রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আলীমুজ্জামান এই কথা জানান।
তিনি ১৩২ কেন্দ্রের ফল ঘোষণা করে জানান, দুই প্রার্থীর মধ্যে যে ব্যবধান তার চেয়ে স্থগিত দুই কেন্দ্রের ভোট বেশি হওয়ায় স্থানীয় সরকার সিটি করপোরেশন সংশোধন আইনি এর ৩৭ (২) উপবিধি অনুযায়ী ওই দুই কেন্দ্রে আবার ভোটগ্রহণ শেষে বিজয়ী প্রার্থীর নাম ঘোষণা করতে হবে।
তবে স্থগিত যে দুই কেন্দ্রে ভোট হবে তা ব্যবধানের চেয়ে বেশি হলেও তার সংখ্যা বিবেচনায় নিলে আরিফুলের জয় নিশ্চিতই বলা যায়। কারণ দুই কেন্দ্রে ভোট আছে মোট চার হাজার ৭৮৭।
এর মধ্যে গাজী বোরহানুদ্দীন মাদ্রাসা কেন্দ্রে ২২২১ ভোট ও হবিনন্দি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ২৫৬৬ ভোট রয়েছে। আর কামরানের থেকে আরিফুলের ভোটের ব্যবধান রয়েছে ৪৬২৬।
অর্থাৎ এই দুই কেন্দ্রের প্রায় শতভাগ ভোট পেলেই কেবল কামরান জিততে পারবেন, যেটিকে প্রায় অসম্ভবই বলা যায়। ফলে আরিফুলের জয় নিশ্চিতই বলা যায়।
সিলেটের এই ফল ঘোষণায় জাতীয় নির্বাচনের বছর দেশে ভোট হওয়া পাঁচ সিটি করপোরেশনের চারটিতে আওয়ামী লীগের মেয়ররা বসতে যাচ্ছেন। ২০১৩ সালে বিজয়ী হওয়ার পর কেবল সিলেটের দখল রাখতে যাচ্ছে বিএনপি।
এর মধ্যে গত ১৫ মে খুলনায় জিতেছেন আওয়ামী লীগের তালুকদার আবদুল খালেক, ২৬ জুন গাজীপুরে জিতেছেন একই দলের জাহাঙ্গীর আলম। আর আজ সোমবার একই দিন ভোট হয়েছে রাজশাহী, বরিশাল ও সিলেটে। এর মধ্যে রাজশাহী ও বরিশালে জয় পেয়েছে আওয়ামী লীগ।
সূত্র : ঢাকা টাইমস