সুনামগঞ্জে করোনায় আক্রান্ত হলেন আরো ২ জন

স্টাফ রিপোর্টার
সুনামগঞ্জে আরো ২ জন করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে একজন দোয়ারাবাজার উপজেলার এবং অন্যজন দিরাই উপজেলার।

জানা যায়, সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজের ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় দোয়ারাবাজার উপজেলায় একজন করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হন। এছাড়াও ঢাকার ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় দিরাই উপজেলায় আরেকজন করোনা রোগী শনাক্ত হন।

সোমবার রাতে সিভিল সার্জন ডা. শামস উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ঢাকা ও সিলেটে নমুনা পরীক্ষা করে দুই উপজেলায় দুই জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছেন।

এনিয়ে সুনামগঞ্জ জেলায় করোনায় আক্রান্ত হলেন ৬৩ জন। এরমধ্যে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলায় ৪ জন, দিরাই উপজেলায় ৭ জন, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলায় ৭, জন, ছাতক উপজেলায় ৫ জন, জগন্নাথপুর উপজেলায় ৬ জন, দোয়ারাবাজার উপজেলায় ৫, জন, শাল্লা উপজেলায় ৯ জন, জামালগঞ্জ উপজেলায় ৩ জন, বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় ৬ জন, ধর্মপাশা উপজেলায় ৫ জন, তাহিরপুর উপজেলায় ৬ জন।
এদের মধ্যে বাড়ি ফিরেছেন ১৪ জন সুস্থ হয়ে। এরমধ্যে দোয়ারাবাজার উপজেলা ১ জন, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার ২ জন, শাল্লা উপজেলার ৮ জন, জগন্নাথপুর উপজেলার ১ জন, দিরাই উপজেলার ১ জন, ছাতক উপজেলার ১ জন। এছাড়াও ঢাকা থেকে পালিয়ে আসা বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার ১ জন সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালের আইসোলেসন ওয়ার্ড থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

উল্লেখ্য, জেলায় করোনা চিকিৎসার জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ১০০টি বেড প্রস্তুত করা হয়েছে। এছাড়াও ২০ জন ডাক্তার ও ১৪৩ জন নার্সও রয়েছেন। ছাতক, দোয়ারাবাজার, বিশ্বম্ভরপুর, তাহিরপুর, জামালগঞ্জ, জগন্নাথপুর, ধর্মপাশা, দিরাই, শাল্লা উপজেলায় ৩টি করে বেড এবং সুনামগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল ও আনিছা হেলথ কেয়ারে ২টি করে বেড প্রস্তুত করা হয়েছে। চিকিৎসার জন্য ১৩১ টি বেড রয়েছে। এছাড়াও ৮৬ জন ডাক্তার, ২৪৭ জন নার্স প্রস্তুত রয়েছেন। আক্রান্তদের জরুরী চিকিৎসায় স্থানান্তরের প্রয়োজনে ১ টি এম্বুলেন্স প্রস্তুত রয়েছে। জরুরী বিভাগে আইসোলেশনের ব্যবস্থাও রয়েছে।