স্কুলশিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া শুরু ১ নভেম্বর

সু.খবর ডেস্ক
আগামী ১ নভেম্বর থেকে স্কুলশিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া শুরু হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। প্রথমে ঢাকায় ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থীরা টিকা পাবে। পরবর্তী সময়ে সারাদেশের শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া হবে।
বৃহস্পতিবার দুপুরে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদের বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এই কথা বলেন।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, প্রথমে শুধু ঢাকার ১২টি কেন্দ্রে টিকা দেওয়া হবে। পরবর্তী সময়ে কেন্দ্র আরও বাড়ানো হবে। প্রতিদিন ৪০ হাজার শিক্ষার্থীকে টিকা দেওয়া হবে।
জাহিদ মালেক বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের দেওয়া হবে ফাইজারের টিকা। পর্যাপ্ত ফাইজারের টিকা সরকারের হাতে মজুদ আছে। এখন ঢাকায় শুরু করে পরে সারাদেশের শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘টিকা দেওয়ার স্বাভাবিক কার্যক্রম চলমান থাকবে। এছাড়াও গণটিকা কার্যক্রমের আওতায় দেওয়া ৮০ লাখ লোককে দ্বিতীয় ডোজের টিকা আজ থেকে দেওয়া শুরু হয়েছে। আগামীকালের মধ্যে এটি সম্পন্ন করা হবে।’
মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা প্রতিটি জেলায় টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা নিচ্ছি। যেখানে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কক্ষ নেই, সেখানে ব্যবস্থা করার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। আশা করি সেটাও তাড়াতাড়ি হয়ে যাবে এবং প্রতিটি জেলায় স্কুলের ছেলে-মেয়েদের টিকার দেওয়ার কার্যক্রমও শুরু হয়ে যাবে।’
সারাদেশে কবে থেকে টিকাদান কার্যক্রম শুরু হতে পারে- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা নিজেরা সবটা করতে পারি না। শিক্ষা মন্ত্রণালয় তালিকা করে, সেই তালিকা আমরা আইসিটি মন্ত্রণালয়কে দিই। তারা নিবন্ধন করার পরে আমরা কার্যক্রম শুরু করতে পারি। প্রাথমিকভাবে প্রতিদিন ৪০ হাজার শিক্ষার্থীকে টিকা দেওয়ার কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে। যতদিন শিক্ষা মন্ত্রণালয় তালিকা দেবে, টিকা মজুদ ও প্রাপ্তিসাপেক্ষে আমরা টিকা দিতে থাকবো।’
সূত্র : ঢাকাটাইমস