স্বেচ্ছাশ্রমে এ্যাপ্রোচ পাকাকরণ

বিশ্বম্ভরপুর প্রতিনিধি
বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার বাদাঘাট (দ.) ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামের বড় সেতুর উভয় দিক স্বেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে পাকা করা হয়েছে।
জানা যায়, বিশ্বম্ভরপুর বাজার থেকে শক্তিয়ারখলা পর্যন্ত সড়কটি বিগত কয়েক মাস পূর্বে মেরামত ও সংস্কার করা হয়। কিন্তু সেতুর গোড়াগুলো সংস্কার করা হয় নি। ফলে সেতুর উভয় সাইড প্রায় ৬ ইঞ্চি থেকে ১ ফুট দেবে গিয়ে জন দুর্ভোগ দেখা দেয়। প্রতিনিয়তই যাত্রীরা দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন। দীর্ঘদিন ধরে এলজিডি কর্তৃপক্ষ ও ঠিকাদারের অপেক্ষায় অতিষ্ঠ হয়ে এলাকাবাসী, সিএনজি ও লেগুনা মালিক-শ্রমিকগণ নিজস্ব অর্থায়নে স্বেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে সেতুর উভয় দিক পাকা করেছেন।
বাগগাঁও গ্রামের সিএনজি, লেগুনা ম্যানেজার আকবর হোসেন জানান, দীর্ঘ কয়েক মাস ধরে ঠিকাদার রাস্তার কাজ শেষ করলেও বিশ্বম্ভরপুর থেকে শক্তিয়ারখলা পর্যন্ত প্রায় ৮-৯ টি সেতুর গোড়ার কোন কাজ না করে ফেলে রেখেছেন। এ কারণে যানবাহন ও যাত্রী চলাচলে দিন দিন দুর্ভোগ বেড়েই চলেছে। ঘটছে প্রতিদিন দুর্ঘটনা। দীর্ঘ দিন অপেক্ষায় থাকার পর আজ (রোববার) সিএনজি লেগুনা মালিক সমিতি ও এলাকাবাসীর উদ্যোগে আমরা দুর্গাপুরের বড় সেতুর উভয় সাইড পাকা করে জনদুর্ভোগ লাঘব করেছি।
দুর্গাপুর গ্রামের জয়নাল আবদীন জানান, এই বড় সেতুতে গাড়ি উঠতে গিয়ে গাড়ি থেকে যাত্রীরা পড়ে প্রতিনিয়তই দুর্ঘটনা হয়ে আসছে।
উপজেলা প্রকৌশলী মো. ফজলুর রহমান জানান, বন্যার কারণে ঠিকাদার কাজ করতে পাওে নি। সড়কে এখনো পানি আছে। যথাসম্ভব দ্রুত এ কাজগুলো সম্পন্ন করা হবে।