হাওরের ফসল রক্ষা বাঁধের কাজ পরিমাপ করবে দুদক

বিন্দু তালুকদার
সুনামগঞ্জের বোরো ফসল রক্ষায় হাওর রক্ষা বাঁধ নির্মাণে গত বছর যেসব প্রকল্পে অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ ছিল চলতি বোরো মওসুমে সেসব বাঁধ নির্মাণ ও সংস্কারের শুরুতেই পরিমাপ করবে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।
আগামী সপ্তাহেই দুদক কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সহকারি পরিচালক ফারুক আহমদের নেতৃত্বে একটি একটি টিম ও সুনামগঞ্জ পাউবোর কর্মকর্তাগণ এক সাথে এই পরিমাপের কাজ করবেন বলে জানা গেছে।
দুদক কর্তৃক ফসল রক্ষা বাঁধ পরিমাপের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. সাবিরুল ইসলাম ও পাউবো পওর বিভাগ-১ এর নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বকর সিদ্দিক ভুঁইয়া।
গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন পক্ষে অনুষ্ঠিত পাউবোর কাবিটা প্রকল্প বাস্তবায়ন ও মনিটরিং কমিটির সভায় এসব বিষয় জানান জেলা প্রশাসক ও পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী।
সভায় জগন্নাথপুরের ৭৮ ও ছাতকের ৩১ টি প্রকল্পের জন্য আরও সাড়ে ১৮ কোটি বরাদ্দ অনুমোদনের জন্য মন্ত্রণালয়ে সুপারিশ করা হয়।
সভায় পাউবো কর্মকর্তাগণ জানান, এবছর হাওরাঞ্চলের বোরো ফসল রক্ষায় উন্নয়ন প্রকল্পে ৩৭২টি ও অনুন্নয়ন প্রকল্পে ৭১৬টিসহ মোট ১০৮৮ টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে। ১০৮৮টি প্রকল্প বাস্তবায়নে ১০৮৮ টি পিআইসি গঠন করা হবে। দ্রুত পিআইসি গঠনের জন্য সকল উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও পাউবোর শাখা কর্মকর্তাদের অনুরোধ জানানো হয়েছে।
এই বছর  সুনামগঞ্জের ৩৬টি বড় হাওরসহ পুরো জেলার বোরো ফসল রক্ষায় ৫৫০ কিলোমিটার বাঁধ নির্মাণ, রক্ষণাবেক্ষণ ও সংস্কার করা হবে। অনুন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে ২৮ কোটি ৮৮ লাখ বরাদ্দ অনুমোদন হয়েছে। বর্ধিত আরো সাড়ে ৬৫ কোটি টাকা মন্ত্রণালয়ে চাওয়া হয়েছে। উন্নয়ন প্রকল্পের মাধ্যমে ৩৭২ টি প্রকল্প বাস্তবায়নে প্রাথমিকভাবে ৩২ কোটি ৫২ লাখ বরাদ্দ অনুমোদন হয়েছে। তবে এসব প্রকল্প পুনরায় পরিমাপের পর আরও বরাদ্দ লাগলে মন্ত্রণালয়ে চাওয়া হবে।
জেলা প্রশাসক মো. সাবিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে  সভায় উপস্থিত ছিলেন, সুনামগঞ্জ পাউবোর পওর বিভাগ-১ এর নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বকর সিদ্দিক ভুঁইয়া, পওর বিভাগ-২ এর নির্বাহী প্রকৌশলী মো. শাহীনুজ্জামান, জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক মো. জাহেদুল হক, জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মাছুম বিল্লাহ, পাউবোর উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী অমিতাভ চৌধুরী, হেলাল উদ্দিন ভূঁইয়া, জেলা কমিটির সদস্য নুরুর রব চৌধুরী, দৈনিক আমাদেরসময়ের জেলা প্রতিনিধি ও সুনামগঞ্জের খবরের বার্তা সম্পাদক বিন্দু তালুকদার।
সুনামগঞ্জ পাউবো পওর বিভাগ-১ এর নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বকর সিদ্দিক ভুঁইয়া ও পওর বিভাগ-২ এর নির্বাহী প্রকৌশলী মো. শাহীনুজ্জামান বলেন,‘ হাওরের বোরো ফসল রক্ষায় বাঁধ নির্মাণ কাজ আমরা দ্রুত শুরু করতে চাই। তবে হাওর ও নদীর পানি ধীর গতিতে প্রবাহিত হওয়ার কারণে বাঁধ নির্মাণ কাজ শুরু করতে কিছুটা দেরি হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। গত বছর যেসব প্রকল্প নিয়ে মামলা হয়েছিল সেই প্রকল্পগুলোর কাজ করার পূর্বে দুদক পরিমাপ করবে বলে আমাদের জানিয়েছেন। মামলায় জড়িত প্রকল্পগুলোর কাজ শুরুর আগে আমরাও পরিমাপ করতে চাই। সেজন্য পাউবোর পক্ষ থেকে সকল ঠিকাদারকে চিঠি দেয়া হয়েছে, অভিযুক্ত পিআইসির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককেও চিঠি দেয়া হবে। ঠিকাদার ও পিআইসির উপস্থিতিতে প্রকল্পগুলো পরিমাপ করা হবে। আগামী সপ্তাহে দুদকও ওই সব প্রকল্প পরিমাপ করবে বলে আমাদের জানানো হয়েছে। ’
জেলা প্রশাসক মো. সাবিরুল ইসলাম বলেন,‘ এই বছর হাওরের বোরো ফসল রক্ষা বাঁধ নির্মাণ ও সংস্কার কাজ স্বচ্ছতার মাধ্যমে বাস্তবায়ন করা হবে। সময়মত শুরু ও শেষ করার জন্য আমরা আপ্রাণ চেষ্টা করব। সবকিছুই পাউবোর নতুন নীতিমালা অনুযায়ী বাস্তবায়ন করা হবে। জানা গেছে গত বছরের অভিযুক্ত সকল প্রকল্পগুলো এই বছর বাস্তবায়নে কাজ শুরুর পূর্বেই পরিমাপ করবে। সময়মত কাজ শুরুর জন্য দ্রুত পিআইসি গঠনের জন্য তাগিদ দেয়া হয়েছে।’



আরো খবর