১১ জুয়ারীকে জেল হাজতে প্রেরণ

স্টাফ রিপোর্টার
সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে তীর শিলং খেলার অপরাধে ১১ জনকে আটক করেছে।  
বৃহস্পতিবার ভোরে সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুল্লাহ আল মামুনের নেতৃত্বে বিশেষ অভিযান চালিয়ে শহরের বিভিন্ন স্থান থেকে তাদের আটক করা হয়।
পরে আটককৃতদের দুপুরে আদালতে হাজির করা হলে আদালত সবার জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে, শহরতলীর ইব্রাহিমপুরের নৃপেন্দ্র দাসের ছেলে শংকর দাস (৩০), নারায়ন শুক্লবৈদ্যর ছেলে মানিক শুক্লবৈদ্য (৩০), মৃত গিরেন্দ্র দাসের ছেলে সমর দাস (৩০), বিষু দাসের ছেলে আনন্দ দাস (২৮) ও বিমল দাস (৩৮), তেঘরিয়া লম্বাহাটি এলাকার মৃত সৈয়দ আলীর পুত্র মো. শাহাব উদ্দিন (৩৮), রেজাউল ইসলামের ছেলে মো. শামীম (২৫), পশ্চিম হাজীপাড়া এলাকার মৃত কিবরিয়া মিয়ার ছেলে হোসেন আলী (৪২), ওয়েজখালী এলাকার মো. নুর আলী মিয়ার ছেলে   
মো. রাজু আহমদ (২৮), নতুনপাড়া এলাকার সময় পালের ছেলে সঞ্জিত পাল (৩২), তেঘরিয়া ঈদগা মহল্লা এলাকার আমির উদ্দিনের ছেলে মেহেদী হাসান (৩১)।
সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, শহরের যুবসমাজ তীর শিলং জুয়া খেলায় আসক্ত হয়ে কর্মহীন হয়ে পড়েছে। তাই বিশেষ অভিযান চালিয়ে ১১ জনকে জুয়া খেলায় সময় আটক করা হয়েছে। পরে তাদের আদালতে হাজির করা হলে আদালত সবার জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।