১৫ বছরের কিশোরীর বিয়ে আগামীকাল

স্টাফ রিপোর্টার
১৮ বছর হওয়ার পরই কেবল মেয়েদের বিয়ে দেয়ার আইন থাকলেও এসব আইনকানুনকে অবজ্ঞা করে ১৫ বছর বয়সী কিশোরীর বিয়ের আয়োজন করা হয়েছে।
শহরতলীর কুরবান নগর ইউনিয়নের নতুন ব্রাহ্মণগাঁও গ্রামে ওই কিশোরীর বাড়ি। আগামীকাল বুধবার রাতে এই কিশোরীর বিয়ে। কিশোরীর পরিবার ইতোমধ্যে বিয়ের সব প্রস্তুতি নিয়েছে। কিশোরীকে বিয়ে দেয়া হচ্ছে মোল্লাপাড়া ইউনিয়নের আব্দুল্লাপুর গ্রামে। বরের নাম সুশাংক দাস, তার পিতার নাম সুধাংশু দাস।
তবে এ বাল্যবিয়েটি রোধ করতে চেষ্টা করছেন জেলা মহিলা পরিষদ। মহিলা পরিষদের পক্ষ থেকে উপজেলা প্রশাসন ও আইনশৃংখলা বাহিনীকে অবগত করা হয়েছে।
জেলা মহিলা পরিষদের সভাপতি গৌরী ভট্টাচার্য বলেন, ‘গোদারগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সার্টিফিকেট অনুযায়ী
মেয়েটির বয়স ১৫ বছর, কিন্তু তার পরিবার এত কম বয়সেই তাকে বিয়ে দিয়ে দিচ্ছে। এই বাল্য বিয়ের খবর পাওয়ার পরপরই আমরা বিষয়টি প্রশাসনকে অবগত করেছি। আজ মহিলা পরিষদের পক্ষ থেকে ঐ মেয়েটির অভিভাবকদের বুঝানোর জন্য একটি টীম নতুন ব্রাহ্মণগাঁওয়ে যাবে।’