৩৫ কোটি টাকা ব্যয়ে ১৬ কলেজের ভবন নির্মাণ কাজ শেষের পথে

আকরাম উদ্দিন
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে সারা দেশে ১৫শত আইসিটি কলেজ প্রজেক্টের আওতায় সুনামগঞ্জ জেলায় প্রায় ৩৫ কোটি টাকা ব্যয়ে ১৬টি কলেজের ৪ তলা বিশিষ্ট নতুন ভবন নির্মাণ কাজ প্রায় শেষ। চলতি বছরের ডিসেম্বর মাসে সকল কলেজের ভবন নির্মাণ কাজ শেষ হবে বলে জানিয়েছে সুনামগঞ্জের শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর।
শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর কর্তৃপক্ষ জানান, ২০১৬ সালের জুলাই মাসে একই সাথে জেলার ১৬ কলেজের ৪ তলা বিশিষ্ট ভবন নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। ছাতক উপজেলার জাউয়া বাজার কলেজ, গোবিন্দগঞ্জ আব্দুল হক স্মৃতি কলেজ, দোয়ারা উপজেলায় দোয়ারাবাজার কলেজ, সমুজ আলী হাইস্কুল এন্ড কলেজ, জামালগঞ্জ উপজেলায় জামালগঞ্জ ডিগ্রী কলেজ, তাহিরপুর উপজেলায় বাদাঘাট কলেজ, জগন্নাথপুর উপজেলায় জগন্নাথপুর ডিগ্রী কলেজ, শাহজালাল কলেজ, সৈয়দপুর আদর্শ কলেজ, দিরাই উপজেলায় বিবিয়ানা মডেল কলেজ, জগদল কলেজ, শাল্লা উপজেলায় শাল্লা কলেজ, ধর্মপাশা উপজেলায় ধর্মপাশা ডিগ্রী কলেজ, বাদশাগঞ্জ ডিগ্রী কলেজসহ মোট ১৬টি কলেজের ৪ তলা বিশিষ্ট ভবনের নির্মাণ কাজ প্রায় শেষ হওয়ার পথে। একই প্রকল্পের আওতায় শীঘ্রই শুরু হবে আরও ৩টি কলেজের নতুন ভবনের নির্মাণ কাজ। ধর্মপাশা উপজেলায় মধ্যনগর বি.পি হাইস্কুল এন্ড কলেজ, সদর উপজেলায় ইসলামগঞ্জ ডিগ্রী কলেজ ও দিরাই উপজেলায় দিরাই ডিগ্রী কলেজে এসব ভবন নির্মিত হবে। এসব কলেজের ভবন নির্মাণের বাস্তবায়ন কাজ করছে সুনামগঞ্জের শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর।
নবনির্মিত কলেজের এসব ভবনে আনুষাঙ্গিক সুবিধার পাশাপাশি রয়েছে আইসিটি রুম, প্রতিবন্ধী রেম্প, বজ্র নিরোধক দন্ড এবং প্রতি তলায় রয়েছে ১টি করে টয়লেট ব্লক।
তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট কলেজের অধ্যক্ষ মুহাম্মদ জুনাব আলী বলেন, ‘সুনামগঞ্জের শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্মিত ৪ তলা বিশিষ্ট ভবনের কাজ প্রায় ৮০ ভাগ শেষ। ছাদ ঢালাইয়ে অল্প কাজ, দেয়াল নির্মাণ, দেওয়ালে আস্তরণসহ আনুষাঙ্গিক কাজ অসম্পূর্ণ রয়েছে। এ কাজ শেষ হতে আরও ২-৩ মাস সময় লাগবে।’
ছাতক উপজেলার জাউয়া বাজার কলেজের অধ্যক্ষ মো. আব্দুল গফ্ফার বলেন, ‘শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্মিত ৪ তলা বিশিষ্ট ভবনের কাজ শেষ। ভবন নির্মাণ কাজে আমরা সার্বক্ষণিক তদারকি করেছি। আমাদের কলেজে খুব সুন্দর ভবন নির্মাণ হয়েছে।’
সুনামগঞ্জের শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের সহকারী প্রকৌশলী মো. শামসুল আরেফিন খাঁন বলেন,‘সুনামগঞ্জ জেলার ১৬টি কলেজের ৪ তলা বিশিষ্ট ভবনের নির্মাণ কাজ প্রায় শেষ। চলতি বছরের ডিসেম্বর মাসে ভবন নির্মাণের সকল কাজ শেষ হবে। এরপর আমরা কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছে ভবন হস্তান্তর করতে পারবো। ৪ তলা বিশিষ্ট এই ভবনগুলো নির্মাণ করতে ব্যয় হয়েছে প্রায় ৩৫ কোটি টাকা। কিছুদিনের মধ্যে ২য় ধাপে আরও ৩টি কলেজের ৪ তলা বিশিষ্ট ভবনের নির্মাণ কাজ শুরু হবে।’