৫ স্তর বিশিষ্ট নিরাপত্তা বেষ্টনী

ছাতক প্রতিনিধি
আজ শনিবার ছাতক পৌরসভা নির্বাচন। ইতিমধ্যেই ভোট গ্রহণের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন অফিস। নির্বাচনকে ঘিরে রাখা হয়েছে ৫ স্তর বিশিষ্ট নিরাপত্তা বেষ্টনী। কেন্দ্র অনুযায়ী প্রিজাইডিং ও পুলিং নিয়োগ দেয়া হয়েছে। ভোট গ্রহণের সকল সরঞ্জাম দুপুর থেকে প্রিজাইডিং কর্মকর্তাদের বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রেই একজন করে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বে থাকবে ভ্রাম্যমাণ মোবাইল কোর্ট। তদারকি করার জন্য থাকবেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের নেতৃত্ব একদল পুলিশ। সাদা পোশাকে মোতায়েন থাকবেন ডিএসবি’র কর্মকর্তারা। একজন সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নির্বাচনে সার্বিক মনিটরিং করবেন। সুষ্ঠু নির্বাচনের ক্ষেত্রে সার্বিক দায়িত্ব পালন করনে সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক জাহাঙ্গীর আলম ও পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান বিপিএম।
ভোটারদের মতে পৌরসভার ১৯টি কেন্দ্রের মধ্যে প্রায় সবগুেেলাই ঝুঁকিপূর্ণ। তবে অতিঝুঁকিপূর্ণ হিবেবে ৬টি কেন্দ্রকে চিহ্নিত করেছেন সাধারন ভোটাররা। এর মধ্যে জামেয়া ইসলামিয়া নোয়ারাই, কুমনা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, মন্ডলীভোগ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং চন্দ্রনাথ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় (২টি কেন্দ্র) কে অতি ঝুঁকিপূর্ণ বলে মনে করছেন তারা।
সন্তোষজনক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণের কথা উল্লেখ করে উপজেলা নির্বাচন অফিসার ফয়জুর রহমান জানান, সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। শুধমাত্র ব্যালট পেপার সকালে সকল কেন্দ্রে পৌঁছে দেয়া হবে। সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হবে।
ছাতক থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ নাজিম উদ্দিন জানান, নির্বাচনে সর্বক্ষণ কঠোর নজরধারী করবে পুলিশ বাহিনী। সবগুলো কেন্দ্রই ঝুঁকিপূর্ণ বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। তবে কোন কেন্দ্রই অতি ঝুঁকিপূর্ণ নয় বলে তিনি জানান।