৭০৭ ইউপি ভোটের প্রচার শেষ মধ্যরাতে

সু.খবর ডেস্ক
ধাপের ৭০৭ ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের প্রচার শেষ হচ্ছে সোমবার (৩ জানুয়ারি) মধ্যরাত ১২টায়। এরপর আর কোনো প্রচার চালানো যাবে না। এছাড়া ৫৪ ঘণ্টার জন্য রাত ১২টা থেকে বাইক চলাচল বন্ধ হচ্ছে।
ইসির উপ—সচিব মো. আতিয়ার রহমান জানান, প্রার্থীদের বিষয়টি অবহিত করার জন্য ইতোমধ্যে রিটার্নিং কর্মকর্তাদের নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে। এ নির্দেশনা অমান্য করলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা যথাযথ ব্যবস্থা নেবেন।
আইন অনুযায়ী, ভোটগ্রহণ শুরুর ৩২ ঘণ্টা আগে নির্বাচনী প্রচার কাজ বন্ধ করতে হবে। ভোটগ্রহণ শুরু হবে আগামী ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টায়। তার ৩২ ঘণ্টা আগে অর্থাৎ ৩ জানুয়ারি মধ্যরাত ১২টার পর আর প্রচার চালানো যাবে না। শুধু তাই নয়, কোনো মিছিল, বিজয় মিছিল, মশাল মিছিল, আনন্দ র‌্যালিও করা যাবে না।
ইসির যুগ্ম সচিব এস এম আসাদুজ্জামান জানান, পঞ্চম ধাপে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন ১৯৩ জন প্রার্থী। এদের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৪৮ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৩৩ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ১১২ প্রার্থী রয়েছেন।
প্রার্থিতা প্রত্যাহার শেষে এ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩ হাজার ২৭৪ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৭ হাজার ৯৫০ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ২৫ হাজার ২৩৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
নির্বাচনে ১ কোটি ৪২ লাখ ২০ হাজার ১৯৫ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পাচ্ছেন।
ইতোমধ্যে নির্বাচনী এলাকায় আইন—শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা অবস্থান নিয়েছেন। কেন্দ্রে পুলিশ, আনসারের সমন্বয়ে ভোটের দিন নিয়োজিত থাকবে ২২ জনের ফোর্স।
এছাড়া ভোটের এলাকায় পুলিশ, আনসার ও ব্যাটালিয়ন আনসারের একটি করে টিম মোবাইল ফোর্স হিসেবে এবং প্রতি ইউপির জন্য একটি করে টিম স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে নিয়োজিত রয়েছে।
অন্যদিকে প্রতি উপজেলায় র‌্যাবের দুটি মোবাইল টিম ও একটি স্ট্রাইকিং টিম মোতায়েন রয়েছে। বিজিবির মোবাইল টিম রয়েছে দুই প্লাটুন ও এক প্লাটুন সদস্য নিয়োজিত আছে স্ট্রাইকিং টিম হিসেবে। একই হারে কোস্টগার্ডও মোতায়েন করা হয়েছে। আর প্রতি ইউপিতে অন্তত একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নির্বাচনী আচরণবিধি প্রতিপালনের বিষয়টি নিশ্চিত করার দায়িত্বে রয়েছেন।
ইতোমধ্যে চার ধাপের ইউপি ভোট সম্পন্ন করেছে ইসি। ষষ্ঠ ধাপের ভোট হবে আগামী ৩১ জানুয়ারি। আর সপ্তম ধাপে আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি ভোটগ্রহণ করবে ইসি।
সূত্র : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম