৯৯৯ কল পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করল জগন্নাথপুর থানা পুলিশ

জগন্নাথপুর অফিস
জগন্নাথপুরে কুশিয়ারা নদী থেকে এক নুরুল হক (৫৩) নামে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার মযনাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ মর্গে মরদেহ পাঠিয়েছে পুলিশ। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, গত রবিবার সন্ধ্যার দিকে ৯৯৯ এর কল দিয়ে জগন্নাথপুর থানা পুলিশকে জানানো হয়, জগন্নাথপুরের পাইলগাঁও ইউনিয়নের জালালপুর খেয়াঘাট এলাকায় কুশিয়ারা নদীতে মৃতদেহ
ঋাসছে। খবর পেয়ে জগন্নাথপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ওই ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করে। পুলিশ জানিয়েছে উদ্ধারকৃত ব্যক্তির মরদেহের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহৃ রয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে ঘাতকরা হত্যার করে লাশ নদীতে ফেলে দিয়েছে। ঘটনাস্থল পরির্দশনকারী জগন্নাথপুর থানার উপ পরির্দশক (এসআেই)মির্জা সাখাওয়াত হোসেন এসব তথ্য জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, উদ্ধারকৃত মরদেহের পরিচয় পাওয়া গেছে। তিনি মৌলভীরবাজারের জেলার ছনকাপন গ্রামের মৃত মোবারক আলীর ছেলে। স্বজনরা তাঁর মরদেহ শনাক্ত করেছেন। গত বুধবার থেকে তিনি নিখোঁজ হয়েছেন বলে নিহতের ছেলে ও ভাই পুলিশকে জানিয়েছেন।
জগন্নাথপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানান, ৯৯৯ কল পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।