আক্রান্ত শনাক্ত ৩ জন, সুস্থ ১৬ জন

স্টাফ রিপোর্টার
জেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন আরও ৩ জন। এদিকে নতুন করে সুস্থ হয়েছেন ১৬ জন। মঙ্গলবার জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন স্বাক্ষরিত কোভিড ১৯ রিপোর্ট সূত্রে এই তথ্য জানা যায়।
রিপোর্ট অনুযায়ী ৪৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৩ জন করোনা শনাক্ত হয়েছেন। শনাক্তদের মধ্যে ২ জন ছাতক উপজেলার এবং ১ জন জগন্নাথপুর উপজেলার। নতুন করে আরোগ্য লাভকারীদের মধ্যে ৬ জন ছাতক উপজেলার ও ১০ জন জগন্নাথপুর উপজেলার।
বর্তমানে আইসোলেসনে আছেন ৭১ জন। এরমধ্যে সর্বোচ্চ ৩৮ জন সুনামগঞ্জ সদর উপজেলায়। এছাড়াও দোয়ারাবাজার উপজেলায় ১ জন, বিশ^ম্ভরপুর উপজেলায় ৩ জন, দিরাই উপজেলায় ১জন, ধর্মপাশা উপজেলায় ১ জন, ছাতক উপজেলায় ১১ জন, জগন্নাথপুর উপজেলায় ১৪ জন এবং শাল্লা উপজেলায় ২ জন আইসোলেসনে রয়েছেন।
সুনামগঞ্জ সদর উপজেলায় ১১৯৪ জন করোনা আক্রান্ত শনাক্তের মধ্যে আরোগ্য লাভ করেছেন ১১৪৭ জন। দোয়ারাবাজার উপজেলায় ১৩৫ জন করোনা আক্রান্ত শনাক্তের মধ্যে আরোগ্য লাভ করেছেন ১৩৩ জন। বিশ^ম্ভরপুর উপজেলায় ৯৭ জন করোনা আক্রান্ত শনাক্তের মধ্যে আরোগ্য লাভ করেছেন ৯৪ জন। তাহিরপুর উপজেলায় ৫৬ জন করোনা আক্রান্ত শনাক্তের মধ্যে আরোগ্য লাভ করেছেন ৫৫ জন। জামালগঞ্জ উপজেলায় ১০৬ জন করোনা আক্রান্ত শনাক্তের মধ্যে আরোগ্য লাভ করেছেন ১০৫ জন। দিরাই উপজেলায় ১১৬ জন করোনা আক্রান্ত শনাক্তের মধ্যে আরোগ্য লাভ করেছেন ১১৩ জন। ধর্মপাশা উপজেলায় ৪৪ জন করোনা আক্রান্ত শনাক্তের মধ্যে আরোগ্য লাভ করেছেন ৪১ জন। ছাতক উপজেলায় ৫৮৩ জন করোনা আক্রান্ত শনাক্তের মধ্যে আরোগ্য লাভ করেছেন ৫৬৩ জন। জগন্নাথপুর উপজেলায় ২১৯ জন করোনা আক্রান্ত শনাক্তের মধ্যে আরোগ্য লাভ করেছেন ২০৪ জন। দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলায় ১৪৭ জন করোনা আক্রান্ত শনাক্তের মধ্যে আরোগ্য লাভ করেছেন ১৪৬ জন। শাল্লা উপজেলায় ৪৪ করোনা আক্রান্ত শনাক্তের মধ্যে আরোগ্য লাভ করেছেন ৪২ জন।
জেলায় এ পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ২৭৪১ জন। এরমধ্যে আরোগ্য লাভ করেছেন ২৬৪৩ জন। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত জেলায় মৃত্যুবরণ করেছেন ২৭ জন।
উল্লেখ্য, করোনাভঅইরাস শনাক্তে এ পর্যন্ত ১৯ হাজার ২১১ জনের নমুনা টেস্ট করা হয়েছে। এরমধ্যে রিপোর্ট পাওয়া গেছে ১৮ হাজার ৭৪১ জনের। এরমধ্যে করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ২ হাজার ৬৬২ জন। এদিকে এন্টিজেন নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৭৫৩ জনের। এরমধ্যে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ৭৯ জন।