আরও ২ জন গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার
শাল্লা উপজেলার নোয়াগাঁওয়ে তাণ্ডবের ঘটনায় বাড়িঘর-মন্দির ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনায় আরও ২ জনকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ। সোমবার বিকালে দিরাই উপজেলার ধনপুর ও চণ্ডিপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। আটককৃতরা হলেন ধনপুর গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য হান্নান মিয়া ও চণ্ডিপুর গ্রামের রফিকুল ইসলাম।
ডিবির ওসি মো. ইকবাল বাহার জানান, মামলার এজাহারে এই দুই জনের নাম নেই। কিন্তু ঘটনার সময়ে ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ভিডিও ফুটেজে তাদেরকে সশস্ত্র অবস্থায় দেখা গেছে।
পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান জানান, এর আগে এই ঘটনায় গ্রেফতারকৃতরা ১৬৪ ধারার জবানবন্দিতে ঘটনায় জড়িত যাদের নাম বলেছে, এদের মধ্যে এই দুই জনের নাম আছে।
স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন, গ্রেফতারকৃতরা একজন আওয়ামী লীগ নেতার আত্মীয়। আব্দুল হান্নান ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য, রফিকুল ইসলাম ওয়ার্ড বিএনপি নেতা।
প্রসঙ্গত. জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য বিরোধী আন্দোলনের নেতা মাওলানা মামুনুল হকের সমর্থকরা গত ১৭ মার্চ হামলা, লুটপাট ও ভাংচুর করেছে নোয়াগাঁও গ্রামের ৮৮ বাড়িতে। এসময় গ্রামের ৫ টি মন্দির ভাংচুর করা হয়। নোয়াগাঁও গ্রামের ঝুমন দাস আপন নামের এক তরুণের ফেসবুক আইডি থেকে মাওলানা মামনুল হককে কটাক্ষ করে কথিত স্ট্যাটাসের প্রতিক্রিয়ায় ওই দিন সকাল ৮ টা থেকে ১০ টার মধ্যে এই তা-ব চালানো হয়। এ ঘটনায় চারটি মামলা হয়েছে।