আহমেদ হুসেনের সঙ্গে দেখা করলেন মুকুট

স্টাফ রিপোর্টার
সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক কর্তৃক জেলার ৬ ইউনিটে আওয়ামী লীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি নিয়ে সৃষ্ট বিতর্কের অবসান হয় নি। দফায় দফায় জেলা আওয়ামী লীগের বিবদমান দুই গ্রুপ এই নিয়ে কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে নালিশ জানাচ্ছেন। বৃহস্পতিবারও জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুল হুদা মুকুট কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক (সিলেট বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত) আহমেদ হোসেনের সঙ্গে তার রাজধানীর বাসায় গিয়ে দেখা করে এই বিষয়ে কথা বলেন। নুরুল হুদা মুকুট এই প্রতিবেদককে জানান, তিনি আহমেদ হোসেনকে জানিয়েছেন, জেলা আওয়ামী লীগের কোন সভায় এই বিষয়ে কোন আলোচনা না করে সভাপতি মতিউর রহমান এবং সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন এক তরফাভাবে নিজেদের মনগড়া সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি করে দিয়েছেন। যা আওয়ামী লীগকে ওইসব ইউনিটে বিভক্ত করে দিয়েছে। ত্যাগীরাও এসকল কমিটিতে স্থান পান নি।
তিনি জানান, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ হোসেন তাঁকে জানিয়েছেন, সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি নামের কমিটির কার্যক্রম ৬ ইউনিটেই স্থগিত থাকবে। জেলা কমিটির সভা ডেকে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। শীঘ্রই জেলা কমিটির সভা ডাকার জন্য সাধারণ সম্পাদককে নির্দেশও দিয়েছেন আহমেদ হোসেন। কেন্দ্রীয় নেতার সঙ্গে সাক্ষাতের সময় জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য অমল কর ও জামালগঞ্জের আওয়ামী লীগ নেতা পারভেজ আহমদ তাঁর সঙ্গে ছিলেন বলে জানান তিনি।
এই বিষয়ে জানার জন্য জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এনামুল কবির ইমনকে ফোন দিলে তিনি ফোন রিসিভ না করায় তার বক্তব্য জানা যায় নি।
এর আগে তিন দফায় আওয়ামী লীগের বিবদমান দুই গ্রুপ ঢাকায় গিয়ে কেন্দ্রীয় দায়িত্বশীলদের সঙ্গে দেখা করে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন নিয়ে একে অপরকে দোষারোপ করেছেন। একপক্ষ বলেছেন, জেলা কমিটির সভায় সিদ্ধান্ত নিয়ে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি হয়েছে। আরেক পক্ষ বলেছেন, সিদ্ধান্ত ছাড়াই ৬ ইউনিটে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি হয়েছে।