আ.লীগের ২৭ সম্ভাব্য প্রার্থীর নাম চূড়ান্ত

বিশেষ প্রতিনিধি
আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর নাম এবারের মনোনয়ন প্রত্যাশীর তালিকায় দেবেন না সংগঠনের উপজেলা কমিটির দায়িত্বশীলরা। সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতারা এই তথ্য জানিয়েছেন। সদর উপজেলার নয় ইউনিয়নের ২৭ জন সম্ভাব্য প্রার্থীর নামের তালিকা করেছেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতারা। আজ সোমবার সম্ভাব্য প্রার্থীদের নামের তালিকা সুপারিশ করে জেলা কমিটির নেতাদের কাছে পাঠানো হবে। জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ২০ অক্টোবরের মধ্যে কেন্দ্রীয় স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের কাছে তালিকা জমা দেবেন। অবশ্য দ্বিতীয় দফার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের মতো সংগঠনের উপজেলা ও জেলা কমিটি ছাড়াও কেউ কেউ সরাসরি নাম কেন্দ্রীয় স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডে জমা দেবেন বলে জানা গেছে।
সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল নেতারা জানিয়েছেন, উপজেলার নয় ইউনিয়নে ২৭ জন সম্ভাব্য প্রার্থীর নামের তালিকা করেছেন তারা। এরা হলেন- কোরবাননগর ইউনিয়নে শামছুদ্দিন আহমদ, আব্দুল মতিন ও আফজাল হোসেন। মোল্লাপাড়ায় মুক্তিযোদ্ধা মনির উদ্দিন, আব্দুছ ছোবহান, বকুল চন্দ্র দাস, ইশতিয়াক আলী রিপন ও আলমগীর হোসেন। সুরমা ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুছ ছাত্তার ডিলার ও তাজুল ইসলাম। জাহাঙ্গীরনগর ইউনিয়নে বীর মুক্তিযোদ্ধা মকসুদ আলী, আবু হানিফ ও আবুল কালাম আজাদ রাসেল। রঙ্গারচর ইউনিয়নে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মজিদ ও আবুল কালাম। গৌরারং ইউনিয়নে সারোয়ার মিয়া, ইয়ার লতিফ, সালমা বেগম ও চম্পা বেগম। লক্ষণশ্রী ইউনিয়নে অ্যাডভোকেট মিজানুর রহমান, আনোয়ারুল হক ও আপ্তাব উদ্দিন। মোহনপুর ইউনিয়নে মঈনুল হক, আব্দুর রশিদ ও সীতেশ তালুকদার মঞ্জু। কাঠইড় ইউনিয়নে অ্যাডভোকেট বোরহান উদ্দিন ও দেলোয়ার হোসেন।
গৌরারং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের একজন নেতা জানিয়েছেন, সদর উপজেলা বা জেলা আওয়ামী লীগের সুপারিশ ছাড়াও কেউ কেউ সরাসরি দলীয় ফরম সংগ্রহ করে স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের কাছে জমা দেবেন।
সংগঠনের সদর উপজেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোবারক হোসেন বললেন, জনপ্রিয় প্রার্থীদের নামের তালিকা জেলা কমিটিকে দিতে চাই। সদর উপজেলার সভাপতি তাতে ঐকমত্য পোষণ করলে দুই জনের স্বাক্ষরে তালিকা কেন্দ্রে জমা দেব। তিনি না মানলে একাই দেব। এর আগে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের পরামর্শ নেব।
সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম বললেন, সকল ইউনিয়ন কমিটি সভা করে সম্ভাব্য প্রার্থীর নাম আমাদের কমিটির সভাপতি ও সম্পাদকের কাছে জমা দিয়েছেন। আমরা যৌথ স্বাক্ষরে আগামীকাল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সম্পাদকের কাছে নামের তালিকা জমা দেব।
সভাপতি আবুল কালাম ও সম্পাদক মোবারক হোসেন জানালেন, গেল নির্বাচনে মনোনয়ন না পেয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসাবে দলীয় প্রার্থীর সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন এমন কারো নাম সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রত্যাশীর তালিকায় দেব না আমরা।
জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম. এনামুল কবির ইমন বললেন, সদর উপজেলার সব কয়টি ইউনিয়ন কমিটি উপজেলা কমিটিকে সম্ভাব্য প্রার্থীর তালিকা দিয়েছে। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষর করে তালিকা জেলা কমিটিকে দেবেন। আমরা সেটি ২০ তারিখের মধ্যে কেন্দ্রীয় স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডে জমা দেব।