ইউএনও’র মোবাইল নাম্বার ক্লোন করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চাঁদা দাবির অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার, তাহিরপুর
তাহিরপুরের ইউএনও’র সরকারি মোবাইল নাম্বার ক্লোন করে উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানগণের নিকট থেকে চাঁদা দাবির অভিযোগ ওঠেছে।
শনিবার দুপুর থেকেই ইউএনওর ০১৭৩০৩৩১১০৯ থেকে বিদ্যালয়ে ল্যাপটপ দিবে এ মর্মে টাকা দাবি করছে। বিষয়টি উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানগণ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মিজানুর রহমানকে অবহিত করলে তিনি বিষয়টি ইউএনও তাহিরপুরকে অবগত করেন।
ইউএনও বিজেন ব্যানার্জী বিষয়টি অবগত হয়ে তার ইউএনও তাহিরপুর ফেসবুক আইডি থেকে সন্ধ্যা ৭টা ৪০ মিনিটের সময় উপজেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে সতর্ক থাকার জন্য একটি বার্তা দেন।
বার্তায় তিনি লেখেন, ‘তাহিরপুরের সরকারি মোবাইল নাম্বারটি ক্লোন করে বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের নিকট প্রতারণার উদ্দেশ্যে চাঁদা দাবি করছে। এ বিষয়ে প্রতারণার ফাঁদে না পড়ার জন্য সবাইকে অনুরোধ করছি। চাঁদা দাবি করে কেউ ফোন করলে সরাসরি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করছি। তদন্ত সাপেক্ষে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’
এ বিষয়ে উপজেলার বাদাঘাট ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ জুনাব আলী বলেন, শনিবার বিকেলে তাহার মোবাইল নাম্বারে তাহিরপুর ইউএনওর নাম্বার ক্লোন করে একটি ল্যাপটপ দিবে মর্মে তাহার নিকট নয় হাজার টাকা ০১৮৭০৭৭২০৮৭ নাম্বারে বিকাশ করে পাঠাতে বলে। বিষয়টি তাহার সন্দেহ হলে তিনি উপজেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানগণকে মোবাইলে অবগত করেন।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বলেন, বিষয়টি তিনি ইউএনও তাহিরপুরকে অবগত করেছেন।
ইউএনও তাহিরপুর বিজেন ব্যানার্জী বলেন, ইউএনও তাহিরপুরের সরকারী নাম্বার ক্লোন করে উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ল্যাপটপ দিবে মর্মে চাঁদা দাবি করছে। এ বিষয়ে তিনি রবিবার তাহিরপুর থানায় একটি সাধারন ডায়রী করবেন বলে জানান।