ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা’র বরখাস্তের আদেশ স্থগিত

স্টাফ রিপোর্টার
দোয়ারাবাজার উপজেলার মান্নারগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা আজিজের সাময়িক বরখাস্তের আদেশ স্থগিত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকালে আবু হেনা আদালতের আদেশের কপি পেয়েছেন। গত ১২ এপ্রিল স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের অধিশাখা ১’এর উপসচিব মো. আবু জাফর রিপন স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে তাকে বরখাস্তের কথা জানানো হয়।
সাময়িক বরখাস্তের আদেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন চেয়ারম্যান আবু হেনা আজিজ। রিটের শুনানি শেষে আদালত তার বরখাস্তের আদেশ স্থগিত করেন। গত ২৫ এপ্রিল হাইকার্টের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সরদার মো. রাশেদ জাহাঙ্গীরের একটি বেঞ্চ এই আদেশ দেন। আদেশের কপি বৃহস্পতিবার হাতে পেয়ে বিষয়টি জেলা প্রশাসক ও দোয়ারাবাজার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবহিত করেছেন বলে জানিয়েছেন ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা আজিজ।
গত ১২ এপ্রিল স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের অধিশাখা ১’এর উপসচিব মো. আবু জাফর রিপন স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়, দোয়ারাবাজার উপজেলার মান্নারগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আবু হেনা আজিজ’র বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধিত/২০০৩) এর ৩ (১) তৎসহ দ-বিধি, ১৮৬০ এর ৩১৩ ধারায় সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানায় দায়েরকৃত মামলা নং ১৮, তারিখ ৯/৮/২০২০ এর অভিযোগপত্র আদালত কর্তৃক গৃহীত হয়েছে। তাঁর দ্বারা ইউনিয়ন পরিষদের ক্ষমতা প্রয়োগ প্রশাসনিক দৃষ্টিকোণে সমীচীন নয় মর্মে সরকার মনে হরে। এছাড়াও জেলা প্রশাসক ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন ২০০৯ অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেছেন।
প্রজ্ঞাপনে আরও উল্লেখ করা হয়- ইউপি চেয়ারম্যান মো. আবু হেনা আজিজ সংগঠিত অপরাধমূলক কার্যক্রম পরিষদ সহ জনস্বার্থের পরিপন্থি বিবেচনায় স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন ২০০৯ এর ধারা ৩৪ (১) অনুযায়ী তাঁর স্বীয় পদ হতে সাময়িক বরখাস্ত করা হলো।
যুক্তরাজ্য প্রবাসী ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা আজিজ’এর বিরুদ্ধে সদর উপজেলার রঙ্গারচর এলাকার এক নারী গত বছরের ৯ আগস্ট ধর্ষণের অভিযোগে এনে সদর থানায় মামলা করেন। এই মামলায় প্রায় ৪ মাস তিনি জেল খেটেছেন।