এক ধর্ষকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

স্টাফ রিপোর্টার
১১ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণের দায়ে সুনামগঞ্জে এক ধর্ষককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে ধর্ষককে এক লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। যা ভিকটিমকে ক্ষতিপূরণ হিসাবে দেওয়া হবে। সাজাপ্রাপ্ত আসামীর নাম বাবুল মিয়া (২০)। সে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার কাইয়ারগাঁও গ্রামের মৃত. দেওয়ান আলীর ছেলে। বুধবার বিকালে এই রায় প্রদান করেন জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. জাকির হোসেন।
রাষ্ট্রপক্ষে আইনজীবী ছিলেন পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভেকেট নান্টু রায় এবং আসামীপক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট আব্দুল কাদির।
জানা যায়, ২০০২ সালের পহেলা আগস্ট রাত ১২টায় বাবুল মিয়া (২০) ভিকটিমের ঘরে প্রবেশ করে জোরপূর্বক শিশুটিকে ধর্ষণ করে। ভিকটিমের চিৎকারে তার পিতা ও মাতা ঘুম থেকে উঠে আসামীকে হাতেনাতে ধরেন। পরে ঘটনা জানাজানি হলে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গগণ উপযুক্ত বিচারের আশ্বাস দিয়ে আসামীকে নিয়ে যান। কিন্তু বিচার না পেয়ে ভিকটিমের পিতা থানায় গিয়ে মামলা দায়ের করেন (নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা নং-২২৫/০২)। দীর্ঘ তদন্ত শেষে পুলিশ ২০০২ সালের ৩ অক্টোবর আদালতে চার্জশীট দাখিল করে।
সাক্ষ্য প্রমাণ পর্যালোচনা করে আদালত বুধবার বাবুল মিয়াকে সাজা প্রদান করেন।