এমসির ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ মামলার অভিযোগ গঠন ১২ জানুয়ারি

সু.খবর ডেস্ক
সিলেট এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ মামলার চার্জ অভিযোগ গঠন পেছানো হয়েছে। ১০ জানুয়ারি অভিযোগ গঠন করে এই মামলার বিচার প্রক্রিয়া শুরুর কথা ছিল।
তবে বাদি পক্ষের আইনজীবীর আবেদনের প্রেক্ষিতে মামলার কগনিজেন্স (আমল গ্রহণ) শুনানির দিন আগামি মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) ধার্য করা হয়েছে।
রোববার (১০ জানুয়ারি) সিলেটের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মোহিতুল হক বাদি পক্ষের আইনজীবীর আবেদনের প্রেক্ষিতে এ আদেশ দেন।

মামলার বাদি পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট শহিদুল ইসলাম মামলার অভিযোগপত্রের ছায়া কপি (নকল) না পাওয়ায় এ আবেদন করেন।
বাদি পক্ষের প্যানেলের আইনজীবী অ্যাডভোকেট সুব্রত দাশ এ তথ্য নিশ্চিত করে বাংলানিউজকে বলেন, মামলার অভিযোগপত্রের কপি হাতে না পাওয়া এবং তা পর্যালোচনা করে বাদি নারাজি দেবেন কি-না, এ জন্য আবেদন করা হয়। শুনানি শেষে আদালত আবেদনটি মঞ্জুর করে পরবর্তী শুনানির তারিখ ১২ জানুয়ারি নির্ধারণ করেন। এসময় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী রাশিদা সাইদা খানম আদালতে উপস্থিত ছিলেন।
একই সময়ে গণধর্ষণ মামালার আসামি তারেকুল ইসলাম তারেকের আইনজীবী আদালতে জামিনের আবেদন করলে আদালতের বিচারক শুনানি শেষে জামিন নামঞ্জুর করেন।
গত বছরের ২৫ সেপ্টেম্বর সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে আটকে রেখে তরুণীকে গণধর্ষণ করে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। এ ঘটনায় ধর্ষিতার স্বামী বাদী হয়ে শাহপরাণ থানায় মামলা করেন। মামলায় ছাত্রলীগের ছয় নেতাকর্মীসহ অজ্ঞাত আরও তিনজনকে আসামি করা হয়। এ পর্যন্ত মামলার এজাহারভুক্ত ছয় আসামিসহ আটজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
এ মামলায় আটজনকে অভিযুক্ত করে গত ৩ ডিসেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ। এরপর গত ৩ জানুয়ারি অত্র আদালতে আসামিদের উপস্থিতিতে চার্জ গঠনের তারিখ নির্ধারিত হয়।
সূত্র : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম