ঘরে বসেই সেবা পাচ্ছেন মানুষ-জেলা প্রশাসক

স্টাফ রিপোর্টার
জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, সরকারের বিভিন্ন বিভাগ কিভাবে ডিজিটাল সেবা দিচ্ছে, সেই সেবাগুলো দেখানোর জন্যই এই মেলার আয়োজন করা হয়েছে। আগে সরকারি সেবা পেতে মানুষকে অফিসে যেতে হতো। কিন্তু এখন ঘরে বসেই সেবা পাচ্ছেন মানুষজন। আস্তে আস্তে সকল সেবা ডিজিটালে রূপান্তরিত হচ্ছে। মানুষকে আগে পাসপোর্টের জন্য আবেদন করতে হলে ঢাকায় যেতে হতো। দালালের খপ্পরে পড়ে টাকা গুনতে হতো বেশী। সময়ও বেশি লাগত। এখন ঘরে বসে আবেদন করা যায়। কম সময়ে ডেলিভারিও হয়।
সুনামগঞ্জে ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা উপলক্ষে শহরের ঐতিহ্য যাদুঘর প্রাঙ্গণে শুক্রবার বেলা ১১টায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
সহকারী কমিশনার আর্নিকা আক্তার’র সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) শেখ মহিউদ্দিন, জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ এহ্সান শাহ, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম প্রমুখ।
এসময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক মোহাম্মদ জাকির হোসেন, এলজিইডি নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মাহবুব আলম, সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আশরাফুল ইসলাম প্রাং।
এর আগে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসনের সামনে থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি সুনামগঞ্জ ঐতিহ্য যাদুঘর প্রাঙ্গণে গিয়ে আলোচনা সভায় মিলিত হয়। র‌্যালিতে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও শিক্ষকবৃন্দ সহ বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা অংশগ্রহণ করেন। পরে বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন।
উল্লেখ্য, মেলায় বিভিন্ন দপ্তরের ৬০টি স্টল অংশগ্রহণ করেছে।