চর-হাওর-দ্বীপে কর্মরত ব্যাংকাররা পাবেন ভাতা

সু.খবর ডেস্ক
চর, হাওর ও দ্বীপ অঞ্চলে কমর্রত সরকারি ছয় ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ভাতা দিতে নির্দেশনা দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।
রবিবার (৯ জানুয়ারি) এ বিষয়ে একটি সার্কুলার জারি করে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন, অগ্রণী, জনতা, সোনালী, রূপালী, বিডিবিএল ও বেসিক ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের কাছে পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।
এর আগে ২০১৯ সালে সরকার যোগাযোগ শিক্ষা, চিকিৎসা ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধার কথা চিন্তা করে সরকার এসব অঞ্চলের সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ভাতা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। সরকারের অন্যান্য দফতরের কর্মকর্তারা তখন থেকেই ভাতা পেলেও ব্যাংকাররা পাচ্ছিলেন না। ব্যাংকাররা ২০২১ সালের ডিসেম্বর থেকেই ভাতা পাবেন।
সার্কুলারে বলা হয়েছে, সরকার ঘোষিত হাওর, দ্বীপ ও চর উপজেলায় অবস্থিত রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ব্যাংকের স্থায়ী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ভাতা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। চলতি মাস থেকেই তারা ভাতার টাকা পাবেন।
জাতীয় বেতন স্কেল-২০১৫ অনুযায়ী সপ্তম ও তদুর্ধ্ব গ্রেডের কর্মকর্তারা পাবেন ৫ হাজার টাকা। অষ্টম গ্রেডের কর্মকর্তারা পাবেন ৪ হাজার ৬শ’ টাকা। নবম গ্রেডের কর্মকর্তারা পাবেন ৪ হাজার ৪শ’ টাকা। ২০তম গ্রেডের কর্মকর্তারা মাসে ১ হাজার ৬৫০ টাকা ভাতা পাবেন।
প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী কিশোরগঞ্জের ইটনা, মিঠামাইন ও অষ্টগ্রাম; চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ, কক্সবাজারের কুতুবদিয়া, নোয়াখালীর হাতিয়া, সিরাজগঞ্জের চৌহালী, কুড়িগ্রামের রৌমারী ও চর রাজীবপুর; ভোলার মনপুরা, সুনামগঞ্জের ধরমপাশা, শাল্লা ও দোয়ারাবাজার; হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জ এবং নেত্রকোনার খালিয়াজুরীতে অবস্থিত সরকারি ব্যাংকের কর্মকর্তারা এই ভাতা পাবেন।
সূত্র : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম