চালকের শাস্তির দাবিতে জগন্নাথপুরে মানববন্ধন

জগন্নাথপুর অফিস
জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের নাদামপুর গ্রামের প্রবাসি জমাত উল্লার ছেলে শাহ পরান মডেল হাইস্কুলের ৮ম শ্রেণীর ছাত্র সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ইমন আহমদের মৃত্যুর ঘটনায় অভিযুক্ত চালকের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বরিবার দুপুরে স্থানীয় এলাকাবাসি ও শাহ পরান মডেল হাইস্কুলের আয়োজনে স্থানীয় নাদামপুর পয়েন্টে এই কর্মসূচি পালিত হয়। পরে এলাকার আব্দুর রাজ্জাকের সভাপতিত্বে ও নোমান আহমদ সাদির পরিচালনায় প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য দেন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম, সাবেক চেয়ারম্যান, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবিব উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি, কলকলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বশির আহমেদ, আওয়ামী লীগ নেতা নুরুল হক, সিরাজ মিয়া, স্থানীয় ইউপি সদস্য ইকবাল হোসেন সাজাদ, শিক্ষক শাহজাহান সিরাজ, রুহুল আমিন, অলিউর রহমান (শিক্ষক), শের আলী, রাহিম মিয়া, ইয়াকুব আলী।
সভায় বক্তারা বলেন, অনেকদিন ধরে পাগলা-জগন্নাথপুর-রানীগঞ্জ-আউশকান্দি আঞ্চলিক মহাসড়কের ফিটনেসবিহীন, লাইসেন্সহীন অবৈধ যানবাহন বেপরোয়াভাবে চলাচল করে আসছে। ফলে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা ঘটছে। গত ২ অক্টোবর একটি লাইসেন্সবিহীন লেগুনা গাড়ির চাপায় ঘটনায়স্থলেই স্কুলছাত্র ইমন নিহত হয়। এ ঘটনায় চালককে আসামিকে করে থানায় মামলা করা হলেও এখনো গ্রেপ্তার করা হয়নি। দ্রুত এই হত্যাকারিকে গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন বক্তারা।
পরে জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মেহেদী হাসানের নিকট একটি স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।
জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ছাতক উপজেলার শক্তিরগাও গ্রামের গাড়ি চালক হাসান মিয়াকে আসামি করে ২০১৮ সালের সড়ক নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। আসামি গ্রেপ্তারে পুলিশী অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
প্রসঙ্গত, গত ২ অক্টোম্বর বাইসাইকেল নিয়ে বাড়ি থেকে জগন্নাথপুর সদর বাজারের উদ্দেশ্য বের হয় ইমন আহমদ। জগন্নাথপুর-রানীগঞ্জ-আউশকান্দি আঞ্চলিক মহাসড়কের কলকলিয়া ইউনিয়নের হিজলা এলাকার নিকটবর্তী স্থানে পৌঁছালে বিপরীত দিকে থেকে আসা বেপরোয়া একটি লেগুনা গাড়ির ধাক্কায় ঘটনাস্থলে ইমন আহমদ মারা যায়।