ছাতকস্থ লাফার্জ কর্তৃক ক্রাশিং চুনাপাথর বিক্রি বন্ধে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ

ছাতক প্রতিনিধি
ছাতকস্থ লাফার্জ হোলসিম সিমেন্ট কারখানা কর্তৃক ক্রাশিং চুনাপাথর খোলাবাজারে বিক্রি আবারো বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এক আবেদনের প্রেক্ষিতে সুপ্রিম কোর্টের আপিল ডিভিশনের চেম্বার কোর্ট এ আদেশ প্রদান করেন। ২৩ নভেম্বর চেম্বার কোর্টের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান এ আদেশ দেন।
এর আগে শিল্প মন্ত্রণালয়ের এক চিঠিতে চুনাপাথর থেকে সিমেন্ট ও ক্লিংকার উৎপাদন ব্যতিত নতুন পণ্য এগ্রিগেট বা খোয়া উৎপাদন ও খোলাবাজারে বিক্রি অবৈধ বলে তা অবিলম্বে বন্ধ করার নির্দেশ দেয়া হয়।
গত ১৬ সেপ্টেম্বর শিল্প মন্ত্রণালয়ের বিসিআইসি অধিশাখার উপসচিব মনিরুজ্জামান স্বাক্ষরিত লাফার্জ হোলসিম সিমেন্ট কারখানার এক্সিকিউটিভ অফিসার/প্লান্ট ম্যানেজার বরাবরে দেয়া চিঠিতে বলা হয়, ভারত থেকে আমদানীকৃত চুনাপাথর থেকে সিমেন্ট ও ক্লিংকার উৎপাদন ব্যতিত কোম্পানীর অনুমোদিত লে-আউট প্লান বা বৈধ কাগজপত্র ছাড়া নতুন পণ্য চুনাপাথর এগ্রিগেট বা খোয়া উৎপাদন বা বাজারজাতকরন অবৈধ। এসব ক্রাশিং চুনাপাথর সৃজন করে খোলাবাজারে বিক্রি করা অবিলম্বে বন্ধ করার জন্য লাফার্জ হোলসিম কর্তৃপক্ষকে নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হয়েছে।
প্রায় দু’মাস বন্ধ থাকার পর হাইকোর্টের এক আদেশে অ্যাগ্রিগেটস ব্যবসা আবারো চালু করে লাফার্জ হোলসিম। হাইকোর্টের বিচারপতি মো. মুজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লার সমন্বয়ে গঠিত ডিভিশন বেঞ্চ ১৮ নভেম্বর শিল্প মন্ত্রণালয়ের নির্দেশের উপর এক মাসের স্থগিতাদেশ জারি করেন। এতে লাফার্জ হোলসিম আবারো ক্রাশিং চুনাপাথর খোলাবাজারে বিক্রির পথ সুগম হয়। এ আদেশের ৫ দিন পর সুপ্রিম কোর্টের আফিল ডিভিশনের চেম্বার কোর্টের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান স্বাক্ষরিত অপর এক আদেশে ক্রাশিং চুনাপাথর খোলাবাজারে বিক্রি আবারো বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়।
এ ব্যাপারে ছাতক লাইমস্টোন ইম্পোর্টাস এন্ড সাপ্লায়ার্স গ্রপের প্রেসিডেন্ট, ব্যবসায়ী-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের আহবায়ক আহমদ শাখাওয়াত সেলিম চৌধুরী ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, ছাতকের ঐতিহ্যবাহী চুনাপাথর ব্যবসা ও শ্রমিকদের অধিকার হরণ করার চেষ্টা করছিল লাফার্জ। বিভিন্ন সময় ক্রাশিং চুনাপাথর খোলাবাজারে বিক্রি বন্ধ করার কথা দিয়েও প্রতারণার আশ্রয় নিয়েছে বিদেশী এ কোম্পানী। কোন রকমের বৈধ কাগজপত্র বা অনুমতি ছাড়াই অন্যায়ভাবে লাফার্জ হোলসিম অ্যাগ্রিগেটস ব্যবসা শুরু করে। লাফার্জ হোলসিকে এসব অন্যায় কার্যক্রম থেকে সরে আসার আহবান জানান তিনি।