ছাতকে ব্যবসায়ী-জনতার নৌপথ অবরোধ

ছাতক প্রতিনিধি
অবৈধভাবে ক্রাশিং চুনাপাথর উৎপাদন ও খোলাবাজারে বিক্রির প্রতিবাদে লাফার্জ হোলসিম’র বিরুদ্ধে ছাতকে ব্যবসায়ী-শ্রমিক ও সর্বস্তরের জনতা সকাল-সন্ধ্যা নৌ-পথ অবরোধ কর্মসূচি পালন করেছে।
রবিবার সকাল ৬টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত অবরোধ চলাকালে ব্যবসায়ী-শ্রমিক-জনতা লাফার্জ ফেরী ঘাটে অবস্থান নেন। এ সময় ছোট-ছোট নৌকা দিয়ে সুরমা নদীতে মাইকিং করে সব ধরনের নৌ-যান চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়। নৌ-পথ অবরোধের ফলে সুরমা নদীতে নেমে আসে এক পিনপতন নীরবতা। নদীর লাফার্জ ঘাটের উভয় দিকের প্রায় এক কিলোমিটারের মধ্যে কোন নৌ-যান চোখে পড়েনি। অবরোধের জন্য লাফার্জ হোলসিম কারখানার কোন পণ্য লোডিং ও আন লোডিং হতে দেখা যায়নি।
এদিকে সকাল থেকে লাফার্জ ফেরী ঘাটে ব্যবসায়ী-শ্রমিক-জনতা অবস্থান নিয়ে লাফার্জ হোলসিম’র অবৈধ ক্রাশিং চুনাপাথর খোলাবাজারে বিক্রির প্রতিবাদে সমাবেশ করেছে। ছাতক লাইমস্টোন ইম্পোটার্স এন্ড সাপ্লায়ার্স গ্রুপের প্রেসিডেন্ট, ব্যবসায়ী-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের আহবায়ক আহমদ শাখাওয়াত সেলিম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও ব্যবসায়ী নাজমুল হাসান জুয়েলের পরিচালনায় সমাবেশে বক্তারা বলেন, দেশের প্রচলিত শিল্প আইন ও প্রতিষ্ঠাকালীন চুক্তির তোয়াক্কা না করে লাফার্জ তার অবৈধ কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে ভিন্ন-ভিন্ন কৌশল অবলম্বন করছে। তাদের সকল অবৈধ কার্যক্রম বন্ধ না করা পর্যন্ত ব্যবসায়ী-শ্রমিক-জনতা লাফার্জ হোলসিম বিরুদ্ধে আন্দোলন অব্যাহত রাখবে। এ অঞ্চলের মানুষের রুটি রুজির উপর আঘাত এনেছে লাফার্জ হোলসিম। ব্যবসা ও রুটি-রোজির অধিকার বাস্তবায়নে আন্দোলন ক্রমে-ক্রমে আরও বেগবান হবে, লাফার্জ হোপলসিমকে অবৈধ কার্যক্রম বন্ধে বাধ্য করা হবে।
প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সাবেক পৌর মেয়র আব্দুল ওয়াহিদ মজনু, ব্যবসায়ী সৈয়দ আহমদ, প্রাক্তন অধ্যাপক হরিদাস রায়, পৌর কাউন্সিলর ইরাজ মিয়া, নাজিমুল হক, ছাতক পাথর ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি ফজলু মিয়া চৌধুরী, ব্যবসায়ী-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সেক্রেটারী আবুল হাসান, লাইমস্টোন ইম্পোটার্স এন্ড সাপ্লায়ার্স গ্রুপের জেনারেল সেক্রেটারী অরুন দাস, ছাতক পাথর ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সেক্রেটারী সামছু মিয়া, ব্যবসায়ী আব্দুল হাই আজাদ, আবুল হায়াত, ইউপি চেয়ারম্যান অদুদ আলম, ব্যবসায়ী মাহতাব মিয়া, জালাল উদ্দিন রেনু, আশরাফুল ইসলাম, আলী আমজদ, ইউপি সদস্য শফিক আলী প্রমুখ।
বক্তারা আগামী ২৫ অক্টোবরের মধ্যে অবৈধভাবে ক্রাশিং চুনাপাথর উৎপাদন ও খোলাবাজারে বিক্রি বন্ধ না করলে আগামী ২৬ অক্টোবর সকাল-সন্ধ্যা নৌপথ অবরোধ এবং ছাতকে সকাল ৬ থেকে দুপুর ১২ পর্যন্ত আধবেলা হরতার পালনের ঘোষণা দেন।