ছাতকে ব্র্যাকের অবহিতকরণ কর্মশালা

ছাতক প্রতিনিধি
ছাতকে ব্র্যাকের দুর্যোগ ঝঁুকি ব্যবস্থাপনা কর্মসূচির উদ্যোগে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের সহায়তা প্রদান প্রকল্পের এক অবহিতকরণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা অফিসার্স ক্লাবে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। ব্র্যাকের জেলা সমন্বয়ক (বিডিসি) একে আজাদের সভাপতিত্বে ও প্রকল্প ব্যবস্থাপক হাবিবুর রহমানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরের জামান চৌধুরী। বক্তব্য রাখেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইসলাম উদ্দিন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা তৌফিক হোসেন খান, কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম, সমাজসেবা কর্মকর্তা শাহ শফিউর রহমান, ভেটেরিনারি সার্জন ইমন আল হাসান, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা গোপাল চন্দ্র দাস, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা কেএম মাহবুব রহমান, ইউআরসি ইন্সট্রাকটর মোস্তফা আহসান হাবিব, ক্ষুদ্র কৃষক উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের ম্যানেজার মোফাজ্জল হোসেন, সূর্যে্যর হাসি ক্লিনিকের পরিচালক স্বপ্না বেগম, ছাতক প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক আব্দুল আলিম, অর্থ সম্পাদক বিজয় রায়, ইউপি সচিব ভুদ্বীপ কুমার রায় বর্মন, ইউপি সদস্য হাজেরা বেগম প্রমুখ।
কর্মশালায় প্রকল্প সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনা করেন ব্র্যাকর সিনিয়র মানবসম্পদ কর্মকর্তা বায়োজীদ কবির চৌধুরী, উপজেলা হিসাব কর্মকর্তা কামরুজ্জামান, ব্র্যাক ব্যাংক ছাতক শাখার ব্যবস্থাপক ফুরকানুজ্জামান, প্রকল্পের ফিল্ড কো—অর্ডিনেটর রুমানা হক, ব্র্যাকের প্রোগ্রাম অর্গানাইজার(ওয়াশ) খাইরুল ইসলাম, প্রকল্পের লাইভলীহোড স্পেশালিষ্ট মতিউর রহমান ও মনিটরিং কর্মকর্তা মেহেদী হাসান।
প্রকল্পের কর্মকর্তারা বক্তব্যে বলেন, রেসপেক্ট প্রকল্পটি উপজেলার নোয়ারাই ও ইসলামপুর ইউনিয়নে বাস্তবায়ন করা হবে। কার্যক্রমের মধ্যে অর্থ সহায়তা, কৃষি সহায়তা, আশ্রয় পুনঃনির্মাণে সহায়তা, টিউবওয়েলের গোড়া উচঁুকরণ এবং বন্যা সংক্রান্ত বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধিকরণ কর্মসূচি রয়েছে।
এছাড়া বিশেষ বিবেচনায় উপজেলার ভাতগাঁও ইউনিয়নের ২০০ কৃষক পরিবারকে সার, বীজ প্রদানের আওতায় আনা হয়েছে। নোয়ারাই ইউনিয়নের ৯১০ পরিবারকে বিজনেস প্ল্যান্টের জন্য বিকাশ একাউন্টের মাধ্যমে দু’দফায় ১০হাজার করে টাকা, কৃষি উন্নয়নের ক্ষেত্রে ৩৫০ পরিবারকে সার, বীজ ও কৃষি যন্ত্রপাতি, ৩২ পরিবারকে ঢেউটিন প্রদান এবং ৯টি টিউবওয়েলের গোড়া উচঁুকরণ করা হবে। একইভাবে ইসলামপুর ইউনিয়নের ৮৪০ পরিবারকে বিজনেস প্ল্যান্টের জন্য বিকাশ একাউন্টের মাধ্যমে দু’দফায় ১০হাজার করে টাকা, কৃষি উন্নয়নের ক্ষেত্রে ৩২৬ পরিবারকে সার, বীজ ও কৃষি যন্ত্রপাতি, ২৯ পরিবারকে ঢেউটিন প্রদান এবং ৮টি টিউবওয়েলের গোড়া উচঁুকরন করা হবে। ইতিমধ্যেই উপকারভোগীদের স্বচ্ছ তালিকা প্রস্তুতিতে মাঠ পর্যায়ে কাজ চলছে বলে প্রকল্প কর্মকর্তা জানিয়েছেন।