জগন্নাথপুরে ছোট বোনের সাথে অভিমান করে যুবকের আত্মহত্যা

জগন্নাথপুর অফিস
ছোট বোনের সাথে অভিমান করে পারভেজ মিয়া (২২) নামের এক যুবক আত্মহত্যা করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। রবিবার রাতে জগন্নাথপুর পৌর এলাকার বাড়ি জগন্নাথপুরে এ ঘটনাটি ঘটেছে। সোমবার জগন্নাথপুর থানা পুলিশ ময়না তদন্তের জন্য ওই যুবকের মরদেহ সুনামগঞ্জ মর্গে পাঠিয়েছে।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, বাড়ি জগন্নাথপুরের সমছু মিয়ার ছেলে পারভেজ মিয়া রবিবার রাত ৮টার দিকে বাহির থেকে বাড়ি ফিরে। কিছুক্ষণ পর তার ছোটকে বোন রাজমিন বেগম কে ভাত দেওয়ার কথা বলে। তখন ছোট তাকে জানায়, ভাত ভাত রান্না হচ্ছে একটু পরে দিচ্ছি। সাথে সাথে পারভেজ তার নিজ কক্ষে প্রবেশ করে দরজা বন্ধ করে দেয়। ভাত রান্না শেষে ছোট বোন তাকে ভাত খাওয়ার জন্য ডাকাডাকি করে। সাড়া না পেয়ে দরজার ফাঁক দিয়ে দেখতে পায়, পারভেজ ফ্যানের হুকের সাথে রশি দিয়ে গলায় ফাঁস লাগা অবস্থায় ঝুলে আছে। সঙ্গে সঙ্গে তার চিৎকার শুনে লোকজন এগিয়ে আসে। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।
পারভেজ মিয়ার বাবা সমছু মিয়া বলেন, আমার ছেলের মানসিক কিছু সমস্যা ছিল। সে প্রায় সময় পরিবারের লোকজনের সাথে উগ্র মেজাজে কথা বলত।
জগন্নাথপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) দীপঙ্কর সরকার বলেন, পরিবারের দাবি ওই যুবকের মানসিক সমস্যা রয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।