জগন্নাথপুরে নৌকা পাননি বর্তমান তিন চেয়ারম্যান

জগন্নাথপুর অফিস
জগন্নাথপুর উপজেলার সাত ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন পাওয়া সাতজনের মধ্যে দলের মনোনয়ন পাননি দলের বর্তমান তিন চেয়ারম্যান। গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা নিয়ে তাঁরা জয়ী হয়েছিলেন। তাঁরা হলেন রানীগঞ্জ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম, চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আরশ মিয়া ও আশারকান্দি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহ আবু ঈমানী।
অপরদিকে গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে পরাজিত দুই প্রার্থী আবারও নৌকা প্রতীক পেয়েছেন। মঙ্গলবার রাতে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন বোর্ডের প্রকাশিত চূড়ান্ত তালিকায় দেখা যায়, উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নে নৌকা পেয়েছেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলাল হোসেন। তাঁর বিরুদ্ধে গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী দ্বিপক কান্তি দে এর বিরোধিতার অভিযোগ রয়েছে। যদিও আলাল হোসেন এ অভিযোগ অস্বীকার করছেন।
পাটলী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আঙ্গুর মিয়া ও সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আবুল হাসান গত ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে নৌকা নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে বিজয়ী হতে না পারলেও তাঁরা এবারও নৌকা পেয়েছেন। পাটলী ইউনিয়নে বিশাল ভোটের ব্যবধানে দলের বিদ্রোহী প্রার্থী সিরাজুল হক জয়ী হন। তিনি এবারও প্রার্থী হিসেবে মাঠে আছেন। সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়নে দলীয় প্রতীক নিয়ে ৫৮ ভোটে বিদ্রোহী প্রার্থী তৈয়ব মিয়ার কাছে পরাজিত হন আবুল হাসান। এবার বিদ্রোহী চেয়ারম্যান নির্বাচনী মাঠে না থাকলেও স্বতন্ত্র হিসেবে দলের কয়েকজন মাঠে থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।
রানীগঞ্জ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ছদরুল ইসলাম দলীয় মনোনয়ন পেলেও বর্তমান চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম ও সাবেক চেয়ারম্যান মজলুল হক নির্বাচন করবেন।
আশারকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুস ছত্তার দলীয় মনোনয়ন পেলেও বর্তমান চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ নেতা শাহ আবু ঈমানী ও সাবেক চেয়ারম্যান আইয়ুব খান নির্বাচনে অংশ নিবেন।
চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুল গফুর দলীয় মনোনয়ন পেলেও এ ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগ সদস্য আরশ মিয়া ও আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক চেয়ারম্যান হারুন রশীদ ও আওয়ামীলীগ নেতা শহিদুল ইসলাম বকুল নির্বাচনে অংশ নিবেন।
আরশ মিয়া বলেন পর পর দুই বার নির্বাচিত হওয়ার পরও আমাকে নৌকা প্রতীক দেওয়া হয়নি। আমি নির্বাচনে অংশ নেব। আশা করছি জনগণ নির্বাচনে এর জবাব দিবেন।
পাইলগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সহ সভাপতি সুন্দর উদ্দিন দলীয় প্রতীক পেলেও এ ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মখলিছ মিয়া ও আওয়ামীলীগ নেতা ফারুক মিয়া স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করবেন।
জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আকমল হোসেন বলেন, দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে সবাই কে নৌকার পক্ষে কাজ করতে হবে। আমরা চেষ্টা করব কেউ যাতে নৌকার বিরোধিতা করে প্রার্থী না হয়।