জামালগঞ্জে জিয়াউর রহমানের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

জামালগঞ্জ প্রতিনিধি
জামালগঞ্জে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে প্রেসক্লাবের বহিষ্কৃত সদস্য জিয়াউর রহমানের বিরুদ্ধে খাস জায়গা বন্দোবস্তের নামে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। গতকাল অভিযোগটি দায়ের করেন জামালগঞ্জ উত্তর ইউনিয়নের মুসলিমপুর গ্রামের মৃত মো. আয়াত আলীর ছেলে মো. মনির হোসেন। অভিযোগে একই গ্রামের মৃত নূরুল ইসলামের ছেলে মো. তাজুল ইসলাম ও আলী ইসলাম, মো. শহীদ মিয়ার ছেলে কামরুল ইসলাম, অহিদ মিয়ার ছেলে বকুল মিয়াকে সাক্ষী করা হয়।
অভিযোগে জানা যায়, সরকারি খাস জায়গা বন্দোবস্তের নামে অভিযোগকারীসহ প্রায় ৩৫ জনের কাছ থেকে ২৫ হাজার টাকা করে পৌনে ৯ লাখ টাকা আদায় করে অভিযুক্ত জিয়াউর রহমান। কিন্তু এত টাকা হাতিয়ে নিলেও এখন পর্যন্ত কারও নামে জায়গা বন্দোবস্ত হয়নি। এছাড়া গ্রিবিয়াস সার্টিফিকেটের নাম করে অভিযোগকারীর কাছ থেকে আরও ১০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় সে। পরে তার কাছে টাকা চাইলে সে সাংবাদিক পরিচয়ে অভিযোগকারীকে হুমকি-ধমকি দিয়ে তাড়িয়ে দেয়। এরপর নিরুপায় মনির উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে দায়েরকৃত অভিযোগে বিষয়টি তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণের আর্জি জানায়।
অভিযুক্ত জিয়াউর রহমান বললেন, আমি এ বিষয়ে কিছু জানি না। আমাদের প্রেসক্লাব নিয়ে ঝামেলা হচ্ছে। এ নিয়ে কেউ হয়তোবা আমাকে ফাঁসাতে চাচ্ছে।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিত দেব বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।