জামালগঞ্জে পরিবেশ সচেতনতামূলক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

হাওরে বেশি পরিমাণে সার ও কীটনাশক ব্যবহারের ফলে পানি বিষাক্ত হচ্ছে। এই বিষাক্ত পানি নদী ও হাওরে মিশে মাছের উৎপাদন কমছে। তাই হাওরে পরিবেশ সম্মত চাষাবাদ জরুরি। জামালগঞ্জ উপজেলা সদরের লক্ষীপুর বিদ্যালয় মাঠে পরিবেশ সম্মত চাষাবাদ বিষয়ক মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন হাওর পাড়ের কৃষকরা। মঙ্গলবার বিকালে একশনএইডের সহযোগিতায় পরিবেশ ও হাওর উন্নয়ন সংস্থা আয়োজিত উক্ত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জামালগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইকবাল আল আজাদ । পরিবেশ ও হাওর উন্নয়ন সংস্থার সভাপতি কাসমির রেজা’র সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক পিযুষ পুরকায়স্থ টিটু’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন একশনএইড বাংলাদেশ এর সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার-ইয়ুথ মোবিলাইজেশন এন্ড ক্লাইমেট একশন, শুভেন্দু বিশ্বাস, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোঃ রফিকুল ইসলাম, মোঃ হুমায়ুন কবির, মোঃ মহসিন কবির, এম আল আমিন, আবু তাহের খান উদয় প্রমুখ।
উক্ত মতবিনিময় সভায় স্থানীয় কৃষক ও তরুণরা হাওরে চাষাবাদের ক্ষেত্রে তাদের নানা সমস্যার কথা তুলে ধরেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইকবাল আল আজাদ বলেন, কৃত্রিম সার ও কীটনাশক ব্যবহারে আমাদের সাময়িক লাভ হলেও দীর্ঘ মেয়াদে অনেক ক্ষতি হয়। হাওরের কৃষকদের তাই পরিবেশ সম্মত চাষাবাদে অভ্যস্ত হতে হবে।
শুভেন্দু বিশ্বাস বলেন, টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করতে হলে আমাদের পরিবেশ সম্মত চাষাবাদ করতে হবে। এতে আমরা দীর্ঘমেয়াদে উপকৃত হব। সভাপতির বক্তব্যে কাসমির রেজা বলেন, হাওরের পরিবেশ বজায় রাখতে না পারলে আমাদের সম্পদ রক্ষা করা যাবে না। তাই পরিবেশ রক্ষায় হাওর বাসীকে আরও সচেতন হতে হবে।
প্রেসবিজ্ঞপ্তি