জিম্বাবুয়েকে বড় ব্যবধানে হারাল বাংলাদেশ

সু.খবর ডেস্ক
হারারেতে জিম্বাবুয়েকে ২২০ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে সিরিজের একমাত্র টেস্ট ম্যাচে জয় তুলে নিয়েছে সফররত বাংলাদেশ। ম্যাচের শুরুতে ব্যাট করতে নেমে নিজেদের প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের করা ৪৬৮ রানের জবাবে জিম্বাবুয়ের ইনিংস থামে ২৭৬ রানে। দ্বিতীয় ইনিংসে ১ উইকেটে ২৮৪ রানে ইনিংস ঘোষণা করলে জয়ের জন্য স্বাগতিকদের প্রয়োজন পড়ে ৪৭৭ রান। কিন্তু ২৫৬ রানেই থেমেছে টেলরদের ইনিংস।
বড় রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে তৃতীয়দিনে জিম্বাবুয়ের দলীয় অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেলরের ৯২ রানের ইনিংসের সুবাদে ১৪০ রান তোলে স্বাগতিকরা।
পঞ্চম দিনের খেলায় ব্যাট করতে আসেন আগের দিনের দুই অপরাজিত জিম্বাবুইয়ান ব্যাটসম্যান ডিওন মেয়ার্স এবং ডোনাল্ড ত্রিপানো। শুরুতে দেখে-শুনে খেলতে থাকলেও দিনের ১৮তম ওভারে প্রথম এবং চতুর্থ বলে ডিওন মায়ার্স এবং টিমসেন মারুমাকে সাজঘরে ফেরান মেহেদি হাসান মিরাজ। আউট হওয়া পূর্বে ২৬ রান তোলেন মেয়ার্স। আর রানের খাতায় খুলতে পারেননি মারুমা।
এরপর রয় কায়াকে শূন্যরানে এবং রেগিস চাকাভাকে ১ রান আউট করে সাজঘরে পাঠিয়েছেন টাইগার পেসার তাসকিন আহমেদ। আর ভিক্টর নুয়াচি ফেরেন ১০ রানে। এবারো ঘাতক সেই তাসকিন। আর ম্যাচের হাল ধরা ডোনাল্ড ত্রিপানোকে আউট করে ম্যাচের প্রথম উইকেট নেন এবাদত হোসেন। আর ১০ রান তুলে মিরাজের বলে বোল্ড হন রিচার্ড এনগারাভা।
আর ৩০ রানে অপরাজিত থাকেন ব্লেসিং মুজারাবানি।
এর আগে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে মাহমুদউল্লাহ অপ্রতিরোধ্য সেঞ্চুরি এবং মুমিনুল, লিটন এবং তাসকিনদের হাফসেঞ্চুরির উপর ভর করে সবকটি উইকেট হারিয়ে নিজেদের প্রথম ইনিংসে পাহাড় সমান ৪৬৮ রান সংগ্রহ করে সফররত বাংলাদেশ দল।
জবাবে ব্যাট করতে নেমে মেহেদি হাসান মিরাজ এবং সাকিব আল হাসানের ঘূর্ণিতে মাত্র ২৭৬ রানেই অলআউট হয়েছে রোডেশিয়রা। তাদের ইনিংস শেষে বাংলাদেশ লিড পায় ১৯২ রান।
বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ পাঁচটি উইকেট নেন মেহেদি হাসান মিরাজ। সাকিব আল হাসান নেন চারটি উইকেট। আর একটি উইকেট তাসকিনের।
আর নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে সাদমান ইসলাম এবং নাজমুল হোসেন শান্তদের সেঞ্চুরির উপর ভর করে ১ উইকেটে ২৮৪ রানে ইনিংস ঘোষণা করে মুমিনুল হকরা।
সূত্র : ঢাকাটাইমস