জেলায় করোনায় শনাক্ত ৩৬ জন, মৃত্যু ১ জনের

স্টাফ রিপোর্টার
জেলায় নতুন করে করোনায় শনাক্ত হয়েছেন আরও ৩৬ জন। নমুনা পরীক্ষা করা হয় ২১৩ জনের। নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ১৬.৯০ শতাংশ। এ পর্যন্ত জেলায় করোনায় আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ৫ হাজার ৮৭৮ জন। এদিকে নতুন করে আরোগ্য লাভ করেছেন জেলার ৫ উপজেলার ৬৯ জন। এছাড়াও করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ছাতক উপজেলার ১ জনের। এনিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ছাতকে মৃত্যু হয়েছে ১৫ জনের।
শুক্রবার জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন স্বাক্ষরিত কোভিড ১৯ রিপোর্ট সূত্রে এই তথ্য জানা যায়। রিপোর্ট অনুযায়ী নতুন করে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে ২২ জন সদর উপজেলার। এছাড়াও ১ জন দোয়ারাবাজার উপজেলার, বিশ^ম্ভরপুর উপজেলার ১ জন, ৪ জন তাহিরপুর উপজেলার, দিরাই উপজেলার ১ জন, জগন্নাথপুর উপজেলার ২ জন এবং ছাতক উপজেলার ৫ জন।
করোনাভাইরাস শনাক্তে এ পর্যন্ত ২৫ হাজার ২৪৭ জনের নমুনা টেস্ট করা হয়েছে। এরমধ্যে রিপোর্ট পাওয়া গেছে ২৪ হাজার ২৩০ জনের। এরমধ্যে করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৭৯৪ জন। এদিকে এন্টিজেন নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৭ হাজার ৯৪৩ জনের। এরমধ্যে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ২ হাজার ৮৪ জন।
নতুন করে আরোগ্য লাভ করেছেন সদর উপজেলার ৯ জন, বিশ^ম্ভরপুর উপজেলার ৮ জন, দিরাই উপজেলার ৫ জন, ছাতক উপজেলার ৪৬ জন এবং শাল্লা উপজেলার ১ জন।
বর্তমানে আইসোলেসনে আছেন ১ হাজার ৪০১ জন। এরমধ্যে সর্বোচ্চ ৯৯৫ জন আইসোলেসনে আছেন সুনামগঞ্জ সদর উপজেলায়। এছাড়াও ছাতক উপজেলার ১০১ জন, বিশ^ম্ভরপুর উপজেলায় ৮ জন, তাহিরপুর উপজেলায় ৪৯ জন, জামালগঞ্জ উপজেলায় ৫৪ জন, দিরাই উপজেলার ৩০ জন, ধর্মপাশা উপজেলার ৩২ জন, দোয়ারাবাজায় উপজেলায় ৬০ জন, জগন্নাথপুর উপজেলায় ৫২ জন, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলায় ২০ জন আইসোলেসনে রয়েছেন।
জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে জেলায় মৃত্যু হয়েছেন মোট ৬৩ জনের। এরমধ্যে সদর উপজেলায় ২১ জন, দোয়ারাবাজার উপজেলায় ১ জন, বিশ^ম্ভরপুর উপজেলায় ২ জন, তাহিরপুর উপজেলায় ২ জন, জামালগঞ্জ উপজেলায় ৩ জন, দিরাই উপজেলায় ৩ জন, ধর্মপাশা উপজেলায় ৪ জন, ছাতক উপজেলায় ১৪ জন, জগন্নাথপুর উপজেলায় ১২ জন, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলায় ১ জনের মৃত্যু হয়েছে।