জেলায় করোনায় শনাক্ত ৭৮ জন

সুস্থ ৯১ জন, মৃত ১ জন
স্টাফ রিপোর্টার
২২১ জনের নমুনা পরীক্ষায় জেলায় নতুন করে করোনাভাইরাসে শনাক্ত হয়েছেন ৭৮ জন। নমুনা পরীক্ষার তুলনায় আক্রান্তের হার ৩৫.২৯ শতাংশ।
৮৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় সদর উপজেলায় ৪০ জন, ৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় বিশ^ম্ভরপুর উপজেলায় ২ জন, ২১ জনের নমুনা পরীক্ষায় তাহিরপুর উপজেলায় ১৪ জন, ১৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় জামালগঞ্জ উপজেলায় ৫ জন, ৫৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় ছাতক উপজেলায় ৮ জন, ১৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় জগন্নাথপুর উপজেলায় ৭ জন এবং ৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলায় ২ জন করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন। এছাড়াও শাল্লা উপজেলায় ৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হলেও কেউ করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হননি।
রবিবার জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন স্বাক্ষরিত কোভিড ১৯ রিপোর্ট সূত্রে এই তথ্য জানা যায়। এদিকে নতুন করে সুস্থ হয়েছেন জেলার ৯১ জন। এদের মধ্যে বিশ^ম্ভরপুর উপজেলায় ৬ জন, তাহিরপুর উপজেলায় ১০ জন, জামালগঞ্জ উপজেলায় ১ জন, ছাতক উপজেলায় ৪০ জন, জগন্নাথপুর উপজেলায় ৩১ জন এবং দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলায় ৩ জন।
সুনামগঞ্জ জেলায় গত বছরের ১২ এপ্রিল প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত একজন রোগী শনাক্ত হন। এরপর থেকে জেলায় এ পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ৩,৯৭৯ জন।
জেলায় এ পর্যন্ত এরমধ্যে আরোগ্য লাভ করেছেন ৩১০৪ জন। আক্রান্তের তুলনায় সুস্থতার হার ৭৮.০০ শতাংশ।
রিপোর্ট অনুযায়ী বর্তমানে আইসোলেসনে আছেন ৮৩১ জন। এরমধ্যে সর্বোচ্চ ৪০৫ জন আইসোলেসনে আছেন সুনামগঞ্জ সদর উপজেলায়। এছাড়াও ছাতক উপজেলার ৪৭ জন, বিশ^ম্ভরপুর উপজেলায় ২১ জন, তাহিরপুর উপজেলায় ৮৮ জন, জামালগঞ্জ উপজেলায় ৪৫ জন, দিরাই উপজেলার ৫১ জন, ধর্মপাশা উপজেলার ৫২ জন, দোয়ারাবাজায় উপজেলায় ১৪ জন, জগন্নাথপুর উপজেলায় ৬৯ জন, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলায় ২৪ জন এবং শাল্লা উপজেলায় ১৫ জন আইসোলেসনে রয়েছেন।
করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ছাতক উপজেলার ১ জন। এ নিয়ে করোনায় ছাতক উপজেলায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৩ জনে। করোনায় আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত জেলায় মৃত্যুবরণ করেছেন ৪৪ জন।
উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস শনাক্তে এ পর্যন্ত ২২ হাজার ৭৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এরমধ্যে রিপোর্ট পাওয়া গেছে ২১ হাজার ৪৩০ জনের। এরমধ্যে করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ৩ হাজার ২০১ জন। এদিকে এন্টিজেন নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৩,৫২৭ জনের। এরমধ্যে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ৭৭৮ জন।