জেলা পরিষদ নির্বাচন/ চেয়ারম্যান পদে দুই আ.লীগ নেতার মনোনয়ন দাখিল

স্টাফ রিপোর্টার
জেলা পরিষদ নির্বাচনে জেলা আওয়ামী লীগের দুই সহসভাপতি মনোনয়ন দাখিল করেছেন। এরা হচ্ছেন জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি নুরুল হুদা মুকুট ও জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি অ্যাডভোকেট খায়রুল কবির রুমেন পিপি।
নুরুল হুদা মুকুট জেলা আওয়ামী লীগের প্রায় বিশ বছর ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। তিনি সুনামগঞ্জ চেম্বার অব কমার্সের তিনবারের সভাপতি এবং এফবিসিসি আইয়ের দুইবারের পরিচালক এবং সিআইপিও ছিলেন। বিগত জেলা পরিষদ নির্বাচনে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক (দলের সমর্থিত প্রার্থী) ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমনকে হারিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি। এবার চেয়ারম্যান পদে দলের সমর্থন পেয়েছেন ব্যারিস্টার ইমনের বড় ভাই জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি অ্যাড. খায়রুল কবির রুমেন। রুমেন জেলা যুব লীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক এবং চট্টগ্রাম বিশ^বিদ্যালয়ের শাহ্ আমানত হল ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন।
মনোনয়ন দাখিলের শেষ দিন বৃহস্পতিবার দুপুরে আওয়ামী ঘরানার এই দুই প্রার্থী নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে গিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন। মনোনয়ন প্রদানকালে দলের নেতাকর্মীসহ স্থানীয় সরকারের নির্বাচিত বহুসংখ্যক প্রতিনিধি ছিলেন তাঁদের সঙ্গে।
নুরুল হুদা মুকুট মনোনয়ন দেবার সময় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুল হক, আব্দুল ওদুদ, আবুল বরকত, মো. মাইনুল্লা, আব্দুর রশিদ, আব্দুল হাই, শাহীন মিয়া, শহীদুল ইসলাম, রাইজুল ইসলাম, সোহেল আহমদ, মিলন মিয়া, নোমান আহমদ, আব্দুল বাছিত সুজন, আলী আহমদ ও বদরুল ইসলাম মিফতাহ্ এবং বিপূল সংখ্যক ইউপি সদস্য উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জিয়াউল হক, আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগের বহু সংখ্যক নেতাকর্মী ছিলেন।
খায়রুল কবির রুমেনের সঙ্গে জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি অ্যাড. আপ্তাব উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন, দোয়ারাবাজার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান দেওয়ান তানভির আশরাফি চৌধুরী বাবু, ছাতক উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আবু সাদাত লাহীন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লিপি বেগম, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাড. রবিউল লেইস রোকেস, সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. রুহুল তুহিন, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক অ্যাড. নান্টু রায়, সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুর রহমান সিরাজ, দলীয় নেতা সুবীর তালুকদার বাপ্টু, মোবারক হোসেন, ইশতিয়াক শামীম, শাহ্ আবু নাসের, ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আওলাদ আলী, বিল্লাল হোসেন, জুবায়ের আহমদ হিমু, আলমগীর খসরু, নূরে আলম সিদ্দিকী তপন, আবুল হাসান, আব্দুল হক, ছাতক পৌরসভার কাউন্সিলর তাপস চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
নির্বাচনে সদস্য পদে ৫৩ জন মনোনয়ন দাখিল করেছেন। এরমধ্যে ১১ জন সংরক্ষিত ওয়ার্ডে সদস্য পদে এবং ৪২ জন সাধারণ সদস্য পদে মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন।
জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা জেলা প্রশাসক জাহাঙ্গীর হোসেন মনোনয়ন দাখিলের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।