জেলা পরিষদ নির্বাচন/দিরাইয়ে নুরুল হুদা মুকুট’র প্রচারণা

দিরাই সংবাদদাতা
সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি নুরুল হুদা মুকুট বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ মনে ধারণ করে আমি গত ৪০ বছর ধরে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে যুক্ত আছি। দলের দুর্দিনে নানাভাবে নির্যাতন নিপীড়ন ও হয়রানির শিকার হয়েছি। ওয়ান ইলিভেনের সময় টানা দুই বছর সুনামগঞ্জ শহরে আসতে পারিনি। তবুও পিছপা হইনি। সামনে থেকে লড়াই করেছি। প্রায় ১৮ বছর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলাম। তৃণমূলের ত্যাগী নেতাকর্মীদের সাথে ছিলাম, এখনও আছি। আগামীতেও নেতাকর্মীদের বিপদে-আপদে সবসময় পাশে থাকবো।
আসন্ন সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী নুরুল হুদা মুকুটের মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রচারণায় রবিবার দিরাই উপজেলার দিরাই পৌরসভা, করিমপুর ও তাড়ল ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন তিনি।
মুকুট বলেন, তৃণমূলের নেতাকর্মীদের অক্লান্ত পরিশ্রম ও আপনাদের ভোটে গত জেলা পরিষদ নির্বাচনে আমি বিপুল ব্যবধানে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছি। আমার পাঁচ বছরের কার্যক্রমে এই দিরাই উপজেলাসহ সুনামগঞ্জ জেলার মানুষ কতোটা সুফল পেয়েছে, সে বিচারের ভার আপনাদের ওপর ছেড়ে দিলাম। আপনাদের ভালোবাসা ও অনুপ্রেরণায় এবারও আমি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছি। জেলা পরিষদ নির্বাচন যেহেতু নির্দলীয় নির্বাচন, তাই আমি সকলের দোয়া ও সহযোগিতা চাই। পুনরায় বিজয়ী হলে জেলার সার্বিক উন্নয়নে নিজেকে আরও বেশী আত্মনিয়োগ করতে চাই।
বেলা ১১টায় করিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের অস্থায়ী কার্যালয়ে ইউপি চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট লিটন চন্দ্র দাসের সভাপতিত্বে এবং বেলা ১২টায় দিরাই পৌরসভা কার্যালয়ে মেয়র বিশ্বজিৎ রায়ের সভাপতিত্বে ও বিকাল ৪টায় তাড়ল ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে ইউপি চেয়ারম্যান আলী আহমদের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
এসব সভায় সকল পৌর কাউন্সিলর, ইউপি সদস্য ও সংরক্ষিত নারী সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া মতবিনিময় সভায় সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শংকর চন্দ্র দাস, মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক সীতেশ তালুকদার মঞ্জু, দিরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাবেক পৌর মেয়র মোশাররফ মিয়া, সদস্য করম উদ্দিন, দিরাই উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রঞ্জন রায়, দিরাই উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোহন চৌধুরী, উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি তাজুল ইসলাম, নুরুল হুদা মুকুটের ব্যক্তিগত সহকারী পাভেল আহমদ, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল মিয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।