তাহিরপুরে জলবায়ু পরিবর্তন ও আমাদের ভবিষ্যৎ শীর্ষক সভা

স্টাফ রিপোর্টার, তাহিরপুর
জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে হাওরের মানুষ চরম ক্ষতির সম্মুখীন। তাই হাওরের মানুষ জলবায়ু সুবিচার চায়। তাহিরপুর উপজেলার বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে ‘জলবায়ু পরিবর্তন ও আমাদের ভবিষ্যৎ, তারুণ্যের মুখোমুখি, স্থানীয় নীতিনির্ধারক’ শীর্ষক সংলাপে এসব কথা বলেন হাওর পাড়ের তরুণরা।
শনিবার বিকাল সাড়ে চারটায় তাহিরপুর উপজেলা বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে পরিবেশ ও হাওর উন্নয়ন সংস্থার আয়োজনে একশন এইডের সহযোগিতায় আয়োজিত সংলাপে সভাপতিত্ব করেন পরিবেশ ও হাওর উন্নয়ন সংস্থার সভাপতি কাসমির রেজা।
সংগঠনের অর্থ সম্পাদক রজত ভূষণ সরকারের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রায়হান কবির, তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুল লতিফ তরফদার, উপজেলা কৃষি অফিসার মো. হাসান-উদ-দৌলা, উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি আমিনুল ইসলাম। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মল্লিকা খাতুন, হাদিস আলী প্রমুখ।
বক্তাগণ বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে পৃথিবীর আলোচিত বিষয়গুলোর মধ্যে অন্যতম প্রধান হচ্ছে জলবায়ু পরিবর্তন। বিশ্ব নেতারা স্কটল্যান্ডের গ্লাসগোতে জলবায়ু সম্মেলনে যোগ দিয়েেেছন। বিষয়টি এখন শুধু আলোচনার টেবিলে সীমাবদ্ধ। জলবায়ু ঝুঁকি মোকাবিলা করতে হলে বিশ্বের প্রতিটি রাষ্ট্রের ঐক্যবদ্ধ প্রয়াস অত্যন্ত জরুরী। জলবায়ু পরিবর্তনের বিষয়ে মানুষকে সচেতন করতে হবে। কলকারখানার কালো ধোঁয়া নির্গমন কমিয়ে আনতে হবে। সিএফসি নির্গত হয় এমন যন্ত্রপাতির ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকতে হবে। জীবাশ্ম জ্বালানির ব্যবহার কমাতে হবে। বনভূমি ধ্বংস বন্ধ করতে হবে এবং বৃক্ষরোপণ ও বনায়ন বাড়াতে হবে। প্রকৃতির ওপর মানুষের বিরূপ আচরণ বন্ধ করতে হবে। বাংলাদেশে জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাবে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। বাংলাদেশে জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট ফান্ড গঠন, ডেল্টা পরিকল্পনা গ্রহণ করে বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। তবে জলবায়ু সুরক্ষা দিতে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার কথা যে উন্নত বিশ্বের তাদের ভূমিকা সন্তোষজনক নয়। এদের উপর চাপ প্রয়োগ অব্যাহত রাখতে হবে।