তাহিরপুরে রক্ষা পেল শতবর্ষী ৫৫টি গাছ

আমিনুল ইসলাম, তাহিরপুর
শতবর্ষী ৫৫টি গাছ কেটে তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের নতুন ভবন নির্মাণ করা হবে। এ লক্ষ্যে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) সুনামগঞ্জ কর্তৃক ৫ কোটি টাকা ব্যয়ে দরপত্র আহবান করা হয়। দরপত্রে অংশগ্রহণ করে ভবন নির্মাণ কাজ পায় ঠিকাদার। কাজ পেয়ে যথারীতি বালু, পাথর, রডসহ অন্যান্য নির্মাণ সামগ্রীও এনেছিলেন কাজের ঠিকাদার। কিন্তু শতবর্ষী ৫৫টি গাছ কেটে তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের নতুন ভবন নির্মাণ করতে হবে এ বিষয়টি এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভ ও অসন্তোষ দেখা দেয়।
এমন সংবাদ ও আলোচনা সুনামগঞ্জ ১ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের নজরে এলে তিনি গাছ কাটতে বাধা দেন এবং উপজেলা পরিষদের নতুন ভবন নির্মাণের জন্য পরিষদ সংলগ্ন জায়গার মালিকদের সাথে কথা বলে জমি ক্রয় করার নির্দেশনা দেন সংশ্লিষ্টদের। এছাড়াও জমি ক্রয়ের প্রয়োজনীয় টাকার ব্যবস্থাও তিনি করে দেবেন বলে জানান।
বুধবার তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন ৩০ শতক জমি ৩ লক্ষ টাকায় তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের নামে ক্রয়মূলে রেজিষ্ট্রি করা হয়। ভূমি সংলগ্ন আরো ৫৭ শতক ভূমি রয়েছে। যা দ্রুত সময়ের মধ্যেই ক্রয়কার্য সম্পাদন করা হবে।
উপজেলা পরিষদের ভূমি ক্রয় ও রেজিষ্ট্রিকার্য সম্পাদন করার সময় উপস্থিত ছিলেন তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রায়হান কবীর, বাদাঘাট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন, তাহিরপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন, উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি আমিনুল ইসলাম, বালিজুরি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আজাদ হোসেন, তাহিরপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জুনাব আলী, শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলী হায়দার, বড়দল দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হাজী ইউনুছ আলী, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মিজানুর রহমান, সাংবাদিক রমেন্দ্র নারায়ন বৈশাখ, শঙ্কর চন্দ, মনিরাজ শাহ প্রমুখ।
তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রায়হান কবির বলেন, এমপি মহোদয়ের সার্বিক সহযোগিতায় উপজেলা পরিষদের নামে জমি ক্রয় করা হয়েছে। পরিষদের সকল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণের উপস্থিতিতে রেজিষ্ট্রি কার্যক্রম সম্পাদন করা হয়েছে।
সুনামগঞ্জ ১ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন বলেন, শতবর্ষী ৫৫টি গাছ রক্ষা করতে এবং তাহিরপুর উপজেলা পরিষদকে নতুন আঙ্গিকে একটি নান্দনিক উপজেলা পরিষদ ভবন নির্মাণ করতে সার্বিক সহযোগীতা করে যাবেন।