তাহিরপুর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা, গ্রেপ্তার ২

তাহিরপুর প্রতিনিধি
তাহিরপুরে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে বালু বোঝাই স্টিলবডি নৌকা সহ দুই জনকে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- উপজেলার বালিজুড়ি ইউনিয়নের রামনগর গ্রামের আব্দুল কাহারের ছেলে আব্দুল্লাহ আল মামুন (২৯) এবং পার্শ্ববর্তী বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার আতিকুল হকের ছেলে মো. দেলোয়ার হোসেন (৩৩)।
এ ঘটনায় সোমবার বিকালে তাহিরপুর থানার এএসআই আল আমিন বাদী হয়ে দুইজন গ্রেপ্তার সহ তিনজনকে পলাতক আসামি দেখিয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় পলাতক আসামিরা হলেন- তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রিয়াজ উদ্দিন খন্দকার লিটন। লিটন উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক এবং শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের বড়ছড়া গ্রামের মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে এবং বালিজুড়ি ইউনিয়নের ফাজিলপুর গ্রামের আলী মৃর্তজার ছেলে ফয়সাল মিয়া অরফে ফজলগীর (৪১), তার সহোদর হোসেনগীর অরফে লাল ভাই।
জানা যায়, উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী শান্তিপুর মাহারাম নদী থেকে ইজারা ছাড়া অবৈধভাবে দীর্ঘদিন ধরে রাতের আঁধারে বালুখেকো একটি চক্র বালু উত্তোলন করে নিয়ে যাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার বিকালে একটি স্টিলবডি নৌকা দিয়ে বালু লুট করে নিয়ে যাচ্ছিল বালুখেকো চক্ররা। পরে সংবাদ পেয়ে তাহিরপুর থানা পুলিশের এস আই নাজমুল হকের নেতেৃত্বে পুলিশের একটি টিম অভিযান চালিয়ে দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নের সোলাইমানপুর বাজারের পশ্চিম পাশের কানা মইয়া হাওরে বালু বোঝাই নৌকাটি জব্দ করে থানায় নিয়ে আসে।
তাহিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুল লতিফ তরফদার বলেন, অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করার অপরাধে একটি বালু বোঝাই স্টিলবডি নৌকা সহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রিয়াজ উদ্দিন খন্দকার লিটন সহ তিন জনকে পলাতক আসামী দেখিয়ে ৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে। পলাতক আসামিদের গ্রেপ্তার করতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।