দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ গুলিবিদ্ধ ৫

জগন্নাথপুর অফিস
জগন্নাথপুর উপজেলার ৮নং আশারকান্দি ইউনিয়নের শান্তির বাজারে চুল কেটে সেলুন কর্মচারীকে টাকা না দেওয়া নিয়ে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে রবিবার গুলিবিদ্ধ হয়েছেন ৫ জন। তাদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজেলার ৮ নং আশারকান্দি ইউনিয়নের শান্তির বাজারে শুক্রবার পাপন নরসুন্দরের সেলুনে চুল কাটতে যান ওসমানীনগর উপজেলার মজলিসপুর গ্রামের ফয়ছল মিয়া। চুল কেটে টাকা না দিয়ে চলে যেতে চাইলে সেলুন মালিক ও ফয়সলের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এসময় সেলুনে থাকা ঐয়ারকোনা গ্রামের ফারুক মিয়া টাকা না দিয়ে যাওয়ার কারণ জানতে চাইলে তার সাথেও ফয়ছল দুর্ব্যবহার করেন। এ ঘটনার জের ধরে মজলিসপুর ও ঐয়ারকোনা গ্রামবাসীর মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। রবিবার দুপুরে মজলিসপুর গ্রামবাসী অস্ত্র স্বস্ত্রে সজ্জিত হয়ে শান্তির বাজারে এলে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। এতে গুলিবিদ্ধ ৫ জনকে জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাদের কে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। আহতরা হলেন ঐয়ারকোনা গ্রামের রবিউল ইসলাম (১৬) আ:তাহিদ(৪০),সেবু মিয়া (২২),রাসেল মিয়া (২৩), হোসেন মিয়া (২৩)।
জগন্নাথপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এখনো এ ঘটনায় কোন মামলা হয়নি।