দুই মাসে সর্বনিম্ন মৃত্যু, কমেছে শনাক্তও

সু.খবর ডেস্ক
দেশে মহামারি করোনাভাইরাসে মৃত্যু ও শনাক্ত আরও কমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১০২ জনের। এটি প্রায় দুই মাসে (৫৮ দিনে) সর্বনিম্ন মৃত্যু। এর আগে গত ২৮ জুন ১০৪ জনের মৃত্যু হয়েছিল। এরপর আর মৃত্যুর সংখ্যা কমেনি।
এদিকে শনাক্তের সংখ্যাও কমেছে। গত এক দিনে শনাক্ত হয়েছে চার হাজার ৬৯৮ জন। শনাক্তের হার ১৩.৭৭।
দেশে করোনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৫ হাজার ৭২৯ জনে। আর শনাক্তের সংখ্যা ১৪ লাখ ৮২ হাজার ৬২৮ জন।
বৃহস্পতিবার বিকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৪ হাজার ১১১টি নমুনা পরীক্ষা করে চার হাজার ৬৯৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ১৩.৭৭। আর এই সময়ে সুস্থ হয়েছেন আট হাজার ৩১৪ জন। দেশে করোনা থেকে সুস্থ হওয়া রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৩ লাখ ৯৭ হাজার ৮৮৫ জন।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ১০২ জনের মধ্যে ৫২ জন পুরুষ ও ৫০ জন নারী। এর মধ্যে ৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে ঢাকা বিভাগে। এরপর চট্টগ্রাম বিভাগে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৪ জন মারা গেছেন। এছাড়া সিলেট বিভাগে ১৩ জন, খুলনা বিভাগে আটজন, বরিশাল বিভাগে ছয়জন, রাজশাহী ও ময়মনসিংহ বিভাগে পাঁচজন করে এবং রংপুর বিভাগে চারজন মারা গেছেন। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, দেশে এখন পর্যন্ত মোট পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ৮৭ শতাংশ। মোট শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৪ দশমিক ২৮ শতাংশ ও মৃত্যুর হার এক দশমিক ৭৪ শতাংশ।
২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ প্রথম মৃত্যুর খবর আসে। কয়েক মাস সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার ঊর্ধ্বগতিতে থাকার পর অনেকটা নিয়ন্ত্রণে চলে আসে। চলতি বছরের শুরুতে করোনাভাইরাসের প্রকোপ অনেকটা নিয়ন্ত্রণে ছিল। তখন শনাক্তের হারও ৫ শতাংশের নিচে নেমেছিল। তবে গত মার্চ মাস থেকে মৃত্যু ও শনাক্ত আবার বাড়তে থাকে। জুলাই মাসজুড়ে পরিস্থিতি বেশি মারাত্মক পর্যায়ে থাকলেও গত কয়েক দিন ধরে পর্যায়ক্রমে কমছে মৃত্যু ও শনাক্তের সংখ্যা।
সূত্র : ঢাকাটাইমস