দেশে চলছে নিরব দুর্ভিক্ষ-মিলন

ছাতক প্রতিনিধি
বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহ সাংগঠনিক সম্পাদাক, সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন বলেছেন, সরকারের অযোগ্যতার কারণে বর্তমানে দেশে নিরব দুর্ভিক্ষ চলছে। দিনি-দিন লাগামহীনভাবে বাড়ছে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম। পরিবার-পরিজন নিয়ে স্বাভাবিকভাবে বেঁচে থাকতে নাভিশ্বাস উঠছে মানুষের। জনবিচ্ছিন্ন এ সরকারের কাছে জনগনের কোন মূল্য নেই। তিনি বলেন, ভোট ডাকাতি করে বর্তমান আওয়ামীলীগ সরকার মসনদে বসেছে। জনগণ নিয়ে ভাবার সময় তাদের নেই। সরকারী দলের ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট দেশে কৃত্রিম সংকট সৃষ্ঠি করে বাজারকে অস্থিতিশীল করে তুলেছে। দেশের এ পরিস্থিতিতে বিএনপি ঘরে বসে থাকতে পারেনা। অবৈধ সরকারের অরাজকতার বিরুদ্ধে ও গণতন্ত্র মুক্ত করার আন্দোলন-সংগ্রামে নেতা-কর্মীদের রাজপথে থাকার আহবান জানান। তেল-গ্যাস-বিদ্যুৎ-সহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যে লাগামহীন ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে রবিবার বিকেলে ছাতকে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী প্রতিবাদ সমাবেশে কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন এসব কথা বলেন।
কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে ছাতক পৌর শহরে বিক্ষোভ মিছিল শেষে ট্রাফিক পয়েন্টে জেলা বিএনপির সহ সভাপতি ও ছাতক পৌর বিএনপির আহবায়ক আলহাজ্ব সৈয়দ তিতুমীরের সভাপতিত্বে ও উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক হিফজুল বারী শিমুলের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি শাহ শফিকুল আলম মতি, জেলা বিএনপির তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক শামছুর রহমান সামছু, জেলা বিএনপি নেতা ছায়াদুজ্জামান ছায়াদ, সামসুর রহমান বাবুল, উপজেলা বিএনপির সদস্য আবদুল মোমিন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ সভাপতি বাকি বিল্লাহ, উপজেলা শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক শফি উদ্দিন, কৃষকদল নেতা পীর ছায়াদুর রহমান, জেলা যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক ইকবাল হোসেন ঝুনু, জেলা যুবদল নেতা জহির উদ্দিন, আলী আশরাফ তাহিদ, আব্দুর রহিম মেম্বার, উপজেলা যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক লিজন মিয়া তালুকদার, স্বেচ্ছাসেবক দলের পৌর আহবায়ক আবুল হোসেন, ছাত্রদল নেতা মাহবুব আহমেদ, জেলা ছাত্র দলের যুগ্ম আহবায়ক ইমদাদুর রহমান ইমন, উপজেলা ছাত্রদলের সদস্য সচিব আব্দুল বাকি মুহিত, ছাত্রদল নেতা আতাউর রহমান সোহাগ, সাচ্ছা আবেদীন প্রমুখ।
সমাবেশে বিএনপি নেতা ফয়জুর রহমান, আজর আলী মেম্বার, কুতুব উদ্দিন, আব্দুল আউয়াল, জাহেদুল ইসলাম আহবাব, শাহ জাহান চৌধুরী আব্দুল্লাহ, সাইদুল হক সবজিল, বাবুল মিয়া মেম্বার, মনির উদ্দিন মেম্বার, শামীম আলম নোমান, আলী হোসেন মানিক,তাজুল ইসলাম তালুকদার, সেলিম আহমেদ, নুর উদ্দিন, যুবদল নেতা জগলু মিয়া, আব্দুল কাইয়ুম, কুতুব উদ্দিন, ইকবাল হোসেন, আব্দুল মুমিন,ফখলুল আলম, তারেক আহমদ, জয়নাল আবেদিন রফিক, কিবরিয়া, এনামূল হক, সুলতান মাহমুদ, এনাম আহমদ, আব্দুল মুনিম মামনুন, সুরুজ মিয়া, ইলিয়াস আলী, দিলাল মিয়া, কুতুব আহমেদ, শ্রমিক দলের মোজাম্মেল হক রুহেল, কৃষকদলের আবুল হাসনাত, কালা মিয়া, স্বেচ্ছাসেবক দলের সুলেমান মিয়া, খলিলুর রহমান, রাকিব আলী, তোফায়েল খান বিপন,আশরাফ আহমদ, নিয়ামত উল¬াহ, এনামুল হোসেন, ছাত্রদল নেতা মোজান্মেল হীসেন মারুফ,সাহেদ ইয়াছিন, আব্দুল আজিজ ফয়সল, হাবিবুর রহমান, মোহাম্মদ সোনা আলী, জয়নাল হোসেন, মাহিব আহমেদ, এমরান আহমেদ মাহিদ, মারুফ আহমদ, জামিল আহমদ, ফজলুল হক, জামরুল ইসলাম রেজা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।