দোয়ারায় স্কুল ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার
দোয়ারাবাজারে এক সিএনজি চালকের বিরুদ্ধে মা—বাবার সামনে থেকে স্কুল পড়–য়া কিশোরীকে জোরপূর্বক অপহরণের অভিযোগ উঠেছে। ওই কিশোরী উপজেলার মুহিবুর রহমান মানিক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী (১৪) ও পূর্ব নৈনগাঁও গ্রামের এক গরিব কৃষকের সন্তান।
গত ২১ সেপ্টেম্বর বুধরাত রাত ১১টার পর সদর ইউনিয়নের পূর্ব নৈনগাঁও গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত সিএনজি চালকের নাম মো. আশকর আলী। তিনি একই গ্রামের মৃত আছদ্দর আলীর ছেলে। এই ঘটনায় ২৩ সেপ্টেম্বর শুক্রবার দোয়ারাবাজার থানায় মো. আশকর আলীর বিরুদ্ধে অপহরণ মামলা করেছেন ছাত্রীর বাবা।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, অষ্টম শ্রেণির ওই স্কুল ছাত্রীকে স্কুলে আসা—যাওয়ার পথে প্রায়ই উত্যক্ত ও কুপ্রস্তাব দিত সিএনজি চালক আশকর আলী। তাতে ওই ছাত্রী রাজী না হওয়ায় অপহরণের হুমকি দিত। স্কুল ছাত্রী বিষয়টি তার পরিবারকে জানালে মান—সম্মানের হানি হবে এমন ভয়ে কারো কাছে বিচারপ্রার্থী হয়নি। গত ২১ সেপ্টেম্বর বুধবার রাত ১১ টার পর আশকর আলী ওই ছাত্রীর বাড়িতে গিয়ে জরুরি কথা আছে বলে তার বাবাকে ঘুম থেকে ডেকে তোলে। ছাত্রীর বাবা বাতি জ্বালিয়ে ঘরের দরজা খোলার সাথে সাথে আশকর আলী ও কয়েক যুবক জোর করে তাদের ঘরে ঢুকে এবং পরিবারের সবাইকে খুন করার হুমকি দিয়ে ওই ছাত্রীর মুখ চেপে জোর করে গাড়িতে তোলে নেয়। এরপর গাড়ি নিয়ে ছাতকের দিকে চলে যায়। নানা স্থানে মেয়েকে খোঁজে না পেয়ে শুক্রবার আশকর আলী ও অজ্ঞাত নামা তিন জনের বিরুদ্ধে থানায় অপহরণ মামলা দায়ের করেন ছাত্রীর বাবা।
দোয়ারাবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেব দুলাল ধর বলেন,‘ নৈনগাঁও গ্রামের অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার ও অভিযুক্তকে গ্রেফতার করার চেষ্টা চলছে।’