দোয়ারায় টাকা না দেয়ায় নির্মাণ শ্রমিকদের মারধরের অভিযোগ

দোয়ারাবাজার প্রতিনিধি
দোয়ারাবাজারে চাঁদাবাজির টাকা না দেয়ায় নির্মাণ শ্রমিকদের মারধরের অভিযোগ করা হয়েছে। গত সোমবার সকালে এ ঘটনা ঘটেছে উপজেলার বোগলাবাজার ইউনিয়নের বোগলা বাজারে। এ ঘটনায় সুরুজ মিয়া বাদি হয়ে দোয়ারাবাজার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
জানা যায়, গত ৯ আগস্ট একই গ্রামের বাচ্চাু মিয়ার পুত্র মো. রানা মিয়া, ও তার আরো দুই ভাই মিলে সুরুজ মিয়ার নব নির্মিত ভবনের কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ প্রধান করে। এমনকি সুরুজ মিয়ার ঘরের কাজের জিনিসপত্র বিভিন্ন সময় চুরি করে নিয়ে যায়। সুরুজ মিয়া তার ভবনের নির্মাণ কাজে লোকজনকে কাজ করার জন্য বলেন। কিছু সময় পরে রানা মিয়ার লোকজন ৫০ হাজার টাকা দাবি করেন অন্যথায় ঘরের কাজ করতে দিবে না। এ সময় সুরুজ মিয়ার ঘরের কাজের শ্রমিকদের বেদরক মারপিট করে রক্তাক্ত জখন করে রানা মিয়ার লোকজন। পরে নির্মাণ শ্রমিকদের উদ্ধার করে দোয়ারাবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা করান সুরুজ মিয়া।
এ ব্যাপারে ঘরের মালিক সুরুজ মিয়া বলেন, আমার ঘরের কাজের শুরুতেই বাচ্চু মিয়া ভিবিন্নভাবে আমার কাছে টাকা পয়সা চায়। আমি টাকা পয়সা না দিলে আমার ঘরের কাজের জিনিসপত্র চুরি করে নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে আমি সবসময় এলাকার মুরব্বিদের জানিয়ে আসছি। গত সোমবার আমার কাছে ৫০ হাজার টাকা দাবি করে টাকা না দেয়ায় আমার ঘরের কাজের শ্রমিকদের মাটপিট করে।
দোয়ারাবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ দেব দুলাল ধর বলেন, সুরুজ মিয়ার একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। আসামী গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। খবর পেয়েছি বাচ্চু, সুরুজ মিয়ার কাছ থেকে প্রায় সময় ভয়ভীতি দেখিয়ে টাকাপয়সা নিয়ে থাকে। তার বিরুদ্ধে আইনত ব্যাবস্থা নেয়া হবে