ধর্মপাশার কৃষককে বারহাট্টায় মারধরের অভিযোগ

ধর্মপাশা প্রতিনিধি
ধর্মপাশা উপজেলার পাইকুরাটি ইউনিয়নের বলমহাটি গ্রামের কৃষক আরশাদ মিয়াকে (৬০) নেত্রকোনার বারহাট্টায় আটকে রেখে মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে আরশাদ মিয়া বারহাট্টা উপজেলার রামারবাড়ি গ্রামের মৃত ইদ্রিস আলীর ছেলে সপু মিয়াসহ ৮ জনের নাম উল্লেখ করে বারহাট্টা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।
লিখিত অভিযোগ সূত্র জানা যায়, আরশাদ মিয়ার সাথে দীর্ঘদিন ধরে সপু মিয়ার জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে। এ বিরোধের জেরে গত ৬ অক্টোবর রামারবাড়ি গ্রামের কবিতা আক্তারের বাড়ির সামনের কাঁচা রাস্তায় আরশাদ মিয়াকে একা পেয়ে সপু মিয়া তার লোকজন এলোপাতাড়িভাবে কিল—ঘুষি মেরে জখম করে। এ সময় আরশাদ মিয়ার সাথে রাখা এক লাখ টাকা নিয়ে যায় হামলাকারীরা। পরে হামলাকারীরা আরশাদ মিয়াকে টানাহেঁচড়া করে রামারবাড়ি গ্রামের মৃত আ. হামিদের ছেলে মিথুন মিয়ার বসতঘরে আটকে রেখে নির্যাতন করে। এ সময় আরশাদ মিয়ার চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এদিয়ে আসে এবং আরশাদ মিয়াকে উদ্ধার করে। এ ঘটনার পরদিন আরশাদ মিয়া বারহাট্টা থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।
আরশাদ মিয়া বলেন, সপু মিয়াসহ তার লোকজন আমাকে ও আমার পরিবারের সদস্যদের প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে।
অভিযুক্ত সপু মিয়া বলেন, আরশাদ মিয়ার সাথে আমার জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলছে। তাকে আটকে রাখে টাকা ছিনতাই বা মারধর করা হয়নি। কিন্তু কেন এমন অভিযোগ করছে জানি না।
অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা বারহাট্টা থানার এসআই হারুন অর রশিদ বলেন, অভিযোগ তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।